সিলেট সিটি উন্নয়নে সরকারের ফিরিস্তি সিরিজ আকারে আসছে : অধ্যাপক মোঃ জাকির হোসেন


sylnews প্রকাশের সময় : জুলাই ৬, ২০২১, ৯:৩৭ অপরাহ্ন /
সিলেট সিটি উন্নয়নে সরকারের ফিরিস্তি সিরিজ আকারে আসছে : অধ্যাপক মোঃ জাকির হোসেন

সিলেট সিটি উন্নয়নে সরকারের ফিরিস্তি সিরিজ আকারে আসছে বলে জানিয়েছেন, সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মোঃ জাকির হোসেন। গতকাল ৫ জুলাই ২০২১ইং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে প্রকাশ করেন। 

সিলেট সিটিতে আওয়ামী লীগ সরকারের উন্নয়ন নিয়ে তাঁর নিজস্ব ফেসবুক আইডি থেকে পোস্ট করলে মুহুর্তে তাঁর স্ট্যাটাসটি বিস্তৃতি লাভ করে। তিনি বলেন, তার বিহীন সিলেট ভূগর্ভস্থ বিদ্যুত ও ইন্টারনেট লাইনসহ ডিজিটাল সিলেটের স্বপ্নদ্রষ্টা ও সফল বাস্তবায়নকারী মাননীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড.এ.কে আব্দুল মোমেন মহোদয়ের উন্নয়নের ফিরিস্তি আমরা অচিরেই সিরিজ আকারে নিয়ে আসবো। 

প্রসঙ্গত: গত ৩০ জানুয়ারি সন্ধ্যায় নগরের দরগাহ গেইটস্থ অভিজাত একটি হোটেলের হলরুমে সিলেট সিটি কর্পোরেশন আয়োজিত ‘উন্নয়ন অগ্রযাত্রা’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে সিলেটের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে মুগ্ধ হয়েছিলেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী জনাব মোঃ তাজুল ইসলাম এমপি এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ.কে. আব্দুল মোমেন এমপি। 

বিশেষ করে এইদিন সিলেট নগরের রাস্তা সম্প্রসারণ, রোড ডিভাইডার সড়ক বাতি, সৌন্দর্য বর্ধনসহ উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন করেন মাননীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন এমপি এবং স্থানীয় সরকার মন্ত্রী জনাব মো. তাজুল ইসলাম এমপি। 

অধ্যাপক জাকির হোসেন জানান,আওয়ামী লীগ সরকারের অগ্রযাত্রায় বদলে যাচ্ছে বাংলাদেশের রূপ। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা সরকারের উন্নয়নমুখী নানা পরিকল্পনার সুফল এখন মানুষের দোরগোড়ায়। মানুষের গড় আয়ু, জীবনযাত্রার মানোন্নয়ন, বিভিন্ন কাজে ডিজিটালাইজেশন সবই সম্ভব হয়েছে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের গুণে। শুধু সিলেট নয়? বিগত বারো বছরে সারা দেশের উন্নয়নে আওয়ামী লীগ সরকার নিরলসভাবে বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করছে।

তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সারা দেশে উন্নয়নের অংশ হিসাবে সিলেট সিটি কর্পোরেশনও বিভিন্ন বরাদ্দ পেয়েছে, তাই মাননীয় সফল প্রধানমন্ত্রী ও পবিত্রভূমির সাংসদ মাননীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী মহোদয় আপনাদের প্রতি রইলো অশেষ শ্রদ্ধা ও অভিবাদন।

অধ্যাপক মোঃ জাকির হোসেন এর স্ট্যাটাসটি প্রকাশের পর অনেকে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে লিখেছেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া সিলেট সিটিতে ২ হাজার কোটি টাকার হিসাব রাখা দরকার ও তা জনসম্মুখে আনা দরকার। সেই জন্য মহানগর আওয়ামী লীগ-কে অগ্রণি ভুমিকা পালন করতে হবে।

আব্দুল আজিম জুনেল লিখেন, আমার আবেদন আওয়ামী লীগের শাসন আমলের সিলেটের উন্নয়নের সকল তথ্য পুস্তক আকারে বের করুন। যাহা কর্মীদের হাতে থাকলে জনগনের কাছে কর্মীবৃন্দ বিস্তারিত তুলে ধরতে পারবেন।

অাব্দুল হাই হাদী বলেন, সরকারের উন্নয়ন জনগণের কাছে পৌঁছানো উচিত।

ছাত্রলীগ নেতা নিতিশ রঞ্জন দাস অপু বলেন, মাননীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী মহোদয়ের আন্তরিকতায় আমরা কৃতজ্ঞ। জনসম্মুখে সবকিছু প্রকাশ করা হোক।

রুহলে নামের এক তরুণ বলেন, এটা দ্রুত করা উচিত। কারণ অনেকে স্বীকারই করে না যে,মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও মাননীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী মহোদয়ের একান্ত ইচ্ছায় আজ সিলেট আধুনিক ও আলোকিত নগরীর পূর্ণতা পেতে যাচ্ছে।

পিংকু আব্দুর রহমান বলেন, এটা খুব জরুরী। কারণ বর্তমান মেয়র সাহেব এ সব উন্নয়নের সুবিধা নিচ্ছেন।

তাছাড়া আরও অনেকই সিটি কর্পোরেশন এর বরাদ্দ নিয়ে মতামত ব্যক্ত করেন। 

মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মোঃ জাকির হোসেন এর সিলেট সিটি কর্পোরেশন উন্নয়নে সরকারের ফিরিস্তির সিরিজ তুলে ধরার উদ্যোগকে সবাই স্বাগত ও অভিনন্দন জানিয়েছেন।