কমলগঞ্জের শমশেরনগরে শুক্রবার আজ বাংলাদেশে প্রথম আল্ট্রা ট্রেইল ম্যারাথন ॥ অংশ নিচ্ছে ১৭ দেশের ৭ শতাধিক রানার


sylnews প্রকাশের সময় : জানুয়ারী ২৮, ২০২১, ৫:৪৪ অপরাহ্ন /
কমলগঞ্জের শমশেরনগরে শুক্রবার আজ বাংলাদেশে প্রথম আল্ট্রা ট্রেইল ম্যারাথন ॥ অংশ নিচ্ছে ১৭ দেশের ৭ শতাধিক রানার

কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি: আজ ২৯ জানুয়ারি শুক্রবার মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার শমশেরনগরে বিটিআরএ (বাংলাদেশ ট্রেইল রানিং এসোসিয়েশন) এর সদস্য শমশেরনগর রানার্স কমিউনিটি (এসএনআরসি)-র আয়োজনে বাংলাদেশে প্রথম আল্ট্রা ট্রেইল ম্যারাথন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। শমশেরনগর চা বাগান ফুটবল মাঠ থেকে এ ম্যারাথন শুরু হবে। বর্ণিল সাজে সজ্জিবত করা হয়েছে চা বাগান মাঠটি। এতে অংশ নিচ্ছে ১৭ দেশের ৭ শতাধিক রানার। ইতিমধ্যে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। এলাকায় সাজ সাজ রব বিরাজ করছে।

শমশেরনগর আলট্রা ট্রেইল ম্যারাথন-২০২১ কমিটির সদস্য সচিব নবিল শমশেরী জানান, আজ শুক্রবার (২৯ জানুয়ারি) মোট ৩টি ধাপে যথাক্রমে ১০ কি.মি, ২১.১ কি.মি. ও ৫০ কি.মি. দূরত্বের প্রথম আল্ট্রা ট্রেইল ম্যারাথন অনুষ্ঠিত হবে। আজ ভোর ৫টায় অংশ গ্রহনকারী রানাররা শমশেরনগর চা বাগান ফুটবল মাঠে এসে রিপোর্ট করবেন। ভোর সাড়ে ৫টায় প্রথমে শুরু হবে ৫০ কি.মি দূরত্বেও রানিং। ভোর ৬টায় শুরু হবে ২১দশমিক ১ কি.মি. দূরত্বের রানিং। ভোর সাড়ে ৬টায় সব শেষে শুরু হবে ১০ কি.মি. দূরত্বের রানিং। রানাররা ট্রেইল রান করে আবার শমশেরনগর চা বাগান মাঠে শেষ করবে। বিকাল ৩টায় অনুষ্ঠিত হবে সমাপনী অনুষ্ঠান ও পুরস্কার বিতরণী। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন মৌলভীবাজারের জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসান।

আয়োজক কমিটি সূত্র জানায়, প্রথমবারের মত অনুষ্ঠিত ট্রেইল ম্যারাথনে ভারত, শ্রীলঙ্কা, ভুটান, জার্মানীসহ ১৭টি দেশের ৩০ জনসহ ৭ বাংলার দেমেল নারী-পুরুষ সমন্বয়ে ৭ শতাধিক রানার ইতিমধ্যেই নিবন্ধন সম্পন্ন করেছেন। বাংলাদেশের পতাকা বহনকারী যারা ইতমধ্যে বিদেশে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করেছেন এমন বেশ কয়েকজন রানারও এ আল্ট্রা ট্রেইল ম্যারাথনে অংশ নিচ্ছেন। দেশী-বিদেশী রানারদের অংশ গ্রহনে অনুষ্ঠিতব্য আল্ট্রা ট্রেইল ম্যারাথনে অংশ গ্রহনকারীদের নিরাপত্তা, স্বাস্থ্য সেবা দেখাশুনা সার্বিক বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়েছে।

স্থানীয় এলাকাবাসী, স্থানীয় প্রশাসন, উপজেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন ও জেলা প্রশাসনের সার্বিক সহযোগিতায় এ ম্যারাথন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ইতিমধ্যেই অংশগ্রহনকারী রানাররা স্থানীয় রিসোর্ট, গেষ্ট হাউজ সমূহ ও শ্রীমঙ্গলের অনেকগুলো রিসোর্ট ও গেষ্ট হাউজে এসে অবস্থান নিয়েছেন। চা বাগান ও পাহাড় বেষ্টিত এলাকায় অনুষ্ঠিত এ আয়োজনের মাধ্যমে শমশেরনগরের ইতিহাস, ঐতিহ্য ও দর্শনীয় স্থান বাংলাদেশ তথা বিশ্বের মাঝে তুলে ধরা তাদের লক্ষ্য।