বাংলাদেশকে ২৪৮ রানের টার্গেট দিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ

সিলনিউজ ডেস্কঃ আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজের পঞ্চম ম্যাচে বাংলাদেশকে ২৪৮ রানের টার্গেট দিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ম্যাচে টস জেতার পর ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৯ উইকেটে ২৪৭ রান করে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। দলের হয়ে হোপ ৮৭ এবং হোল্ডার ৬২ রান করেন। বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি ৩ এবং কাটার মাস্টার মুস্তাফিজুর রহমান নেন ৪ উইকেট।

৯৯ রানে উইন্ডিজদের ৪ উইকেট তুলে নিলেও শাই হোপ ও জেসন হোল্ডারের প্রতিরোধের মুখে পড়ে বাংলাদেশ। অবশেষে তাদের ফিরিয়ে ব্রেকথ্রু এনেছেন মাশরাফি মুর্তজা। ৯ উইকেটে ২৪৭ রানে শেষ হয় ইন্ডিজের ইনিংস।

ষষ্ঠ ওভারে উইন্ডিজের উদ্বোধনী জুটি ভাঙে বাংলাদেশ। মাশরাফি মুর্তজা তার তৃতীয় ওভারের পঞ্চম বলে সুনীল অ্যামব্রিসকে স্লিপে সৌম্য সরকারের ক্যাচ বানান। ১৯ বলে চারটি চারে ২৩ রান করেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ ওপেনার। হোপের সঙ্গে তার উদ্বোধনী জুটি ভেঙেছে ৩৭ রানে।

এরপর দশম ওভারে মাশরাফির তৃতীয় বলে ড্যারেন ব্রাভোর দুর্বল শট পয়েন্টে দাঁড়িয়ে ধরতে পারেননি মেহেদী হাসান মিরাজ। পরের ওভারে বল হাতে নেন এই স্পিনার এবং তৃতীয় বলে ব্রাভোকে ৬ রানে এলবিডাব্লিউ করেন।

মোস্তাফিজ তার দ্বিতীয় ওভারের প্রথম বলে রোস্টন চেজকে ১৯ রানে ফেরান। মাহমুদউল্লাহ মিডউইকেটে সহজ ক্যাচ ধরেন। জোনাথান কার্টারকে নিজের চতুর্থ ওভারে দ্বিতীয় শিকার বানান মোস্তাফিজ। ৩ রানে এলবিডাব্লিউ হন উইন্ডিজ ব্যাটসম্যান।

একপ্রান্ত আগলে খেলতে থাকেন হোপ। হাফসেঞ্চুরি করার পথে হোল্ডারের সঙ্গে পঞ্চাশ ছাড়ানো জুটি গড়েন এই ওপেনার। কিন্তু তিন অঙ্কের ঘরে পৌঁছাতে পারেননি তিনি। অধিনায়কের সঙ্গে ১০০ রানের জুটি গড়ে মাশরাফির শিকার হন হোপ। ১০৮ বলে ৬ চার ও ১ ছয়ে ৮৭ রান করেন তিনি। পরের ওভারে মাশরাফি একইভাবে আউট করেন হোল্ডারকে। ক্যারিবিয়ান অধিনায়ক ৬২ রানে ফিরে গেছেন।

সাকিব আল হাসান তার শেষ ওভারে পেয়েছেন নিজের প্রথম উইকেট। ৭ রানে ফ্যাবিয়ান অ্যালেনকে এলবিডাব্লিউ করেন বাঁহাতি স্পিনার।

এই ম্যাচ দিয়ে টেস্ট ও টি-টোয়েন্টির পর ওয়ানেডেতেও অভিষেক হলো আবু জায়েদ রাহীর। প্রথম ওভারে তিনিই করেন বল। প্রথম বলটিই দেন ওয়াইড, রান দিয়েছেন ৫টি।

ফেসবুক মন্তব্য
xxx