ইউএস বাংলার বিমান দুর্ঘটনার চূড়ান্ত রিপোর্টে পাইলটকে দায়ী করলো নেপাল, বাংলাদেশের প্রতিবাদ

সিলনিউজ অনলাইন, ২৮ জানুয়ারি ২০১৯, সোমবারঃ নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন এয়ারপোর্টে ইউএস বাংলার বিমান দুর্ঘটনার জন্য পাইলটের ‘মানসিকভাবে অস্থির অবস্থায় দিকভ্রান্ত হওয়া এবং পরিস্থিতি সম্পর্কে সুস্পষ্ট ধারণার অভাবকে’ দায়ী করেছে নেপালের তদন্ত কমিটি। বিবিসির এক প্রতিবেদনে এমনটি জানানো হয়েছে। 

তবে নেপালে এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলের যথাযথ মনিটরের অভাবেই ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সের দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ সিভিল এভিয়েশন অথরিটি।

আজ দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে তারা জানায়, পাইলটের ধূমপানই এই দুর্ঘটনার একমাত্র কারণ নয়। বিমানটি অবতরণের সময় কন্ট্রোল টাওয়ার ও বিমান কর্মীদের মধ্যে কিছু বিভ্রান্তিকেও সম্ভাব্য কারণগুলোর অংশ বলে মনে করছে কমিটি। নেপালের গঠিত কমিটি তাদের চূড়ান্ত রিপোর্ট দাখিল করেছে।

তবে বাংলাদেশি কর্তৃপক্ষ নেপালের এই ধরনের সিদ্ধান্তে উপনীত হওয়ার বিষয়টি প্রত্যাখ্যান করেছেন। বিশেষ করে পাইলটের ‘ব্যক্তিগত ভুল’ বিষয়ে দেয়া তথ্যের প্রতিবাদ করেছে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, পাইলটের ভুল হতেই পারে, কিন্তু নেপাল কন্ট্রোল টাওয়ারের দায়িত্ব ছিলো আরো বেশি। তারা সঠিক দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ হয়েছে। দুর্ঘটনার সময় নেপাল কন্ট্রোল টাওয়ারে শিক্ষানবিশ কর্মকর্তা দায়িত্বে ছিলো বলেও জানানো হয়েছে।

গত বছরের ১২ মার্চ নেপালের কাঠমান্ডু ত্রিভুবন বিমানবন্দরে বিধ্বস্ত হয় বাংলাদেশের ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সের একটি যাত্রীবাহী বিমান।

সূত্রঃ যমুনা টিভি 

ফেসবুক মন্তব্য

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *