সাবেক এমপি শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী জামিন লাভ

সিলনিউজ ডেস্কঃ লক্ষ্মীপুরে কুশাখালী এলাকায় জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রচারণার সময় সংঘর্ষের ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় কেন্দ্রীয় বিএনপির প্রচার সম্পাদক ও সাবেক এমপি শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী ও তার বড় ভাই ওয়াহেদ উদ্দিন চৌধুরী হ্যাপীকে জামিন দিয়েছেন আদালত। আজ মঙ্গলবার সকালে লক্ষ্মীপুর জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. শাহেনুর এর আদালতে উপস্থিত হয়ে জামিনের আবেদন করেন তারা। পরে উভয়পক্ষের শুনানী শেষে বিচারক পুলিশ প্রতিবেদন দেয়া পর্যন্ত তাদের জামিন মঞ্জুর করেন। 

শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানীর পক্ষে শুনানীতে অংশ নেন সিনিয়র আইনজীবি ছৈয়দ মোহাম্মদ সামছুল আলম ও এডভোকেট হাসিবুর রহমানসহ বেশ কয়েকজন আইনজীবি। অপরদিকে রাষ্টপক্ষে ছিলেন, পাবলিক প্রসিকিউটর মো. জসিম উদ্দিনসহ কয়েকজন আইনজীবি। এর আগে ২৬শে ডিসেম্বর হাইকোর্ট থেকে ৪ সপ্তাহের আগামী জামিন নেন শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী ও তার বড় ভাই ওয়াহেদ উদ্দিন চৌধুরী হ্যাপী।

উল্লেখ্য,  গত ২৪শে ডিসেম্বর সকালে লক্ষ্মীপুর-৩ আসনের বিএনপি নেতা ও ঐক্যফ্রন্ট প্রার্থী শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী নিজ বাসা থেকে নেতাকর্মীদের নিয়ে গণসংযোগে বের হয়ে সদর উপজেলার শান্তিরহাট বাজারে পৌঁছলে নৌকা প্রার্থীর কর্মীরা অতর্কিত হামলা করে। এ নিয়ে উভয়পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংর্ঘষের ঘটনা ঘটে। এ সময় ধানের শীষের প্রার্থী শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, বিএনপি-যুবদল-ছাত্রদলের অঙ্গসংগঠনের ২৫ নেতাকর্মী আহত হন।

পরদিন কুশাখালী ইউপি চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা নুরুল আমিন তাদের নেতাকর্মীদের ওপর হামলার অভিযোগ এনে চন্দ্রগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করেন। 


মামলায় কেন্দ্রীয় বিএনপির প্রচার সম্পাদক ও লক্ষ্মীপুর-৩ আসনের ঐক্যফ্রন্ট প্রার্থী শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী ছাড়া তার ভাই ওয়াহেদ উদ্দিন চৌধুরী হ্যাপীসহ বিএনপি, যুবদল-ছাত্রদল ও অঙ্গসংগঠনের ১৪৬ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরো ২শ’ নেতাকর্মীকে আসামী করে এ মামলা দায়ের করেন। ২৬শে ডিসেম্বর শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী ও ওয়াহেদ উদ্দিন চৌধুরী হ্যাপী হাইর্কোটে হাজির হয়ে আগাম জামিনের আবেদন করেন। পরে হাইকোর্টের বিচারক মো. রেজাউল হক ও বিচারক মো. মোস্তাফিজুর রহমানের দ্বৈত বেঞ্চ জামিন আবেদন মঞ্জুর করে ৪ সপ্তাহের আগাম জামিন প্রদান করেন। 

ফেসবুক মন্তব্য

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *