নির্বাচন নিয়ে সংলাপের দাবি হাস্যকর : ওবায়দুল কাদের

সিলনিউজ ডেস্কঃ একাদশ জাতীয় নির্বাচনে অনিয়ম এবং কাল্পনিক ফলের অভিযোগ এনে ঐক্যফ্রন্টের পক্ষ থেকে সংলাপের মাধ্যমে নতুন নির্বাচন দেওয়ার যে দাবি জানানো হয়েছে তা প্রত্যাখ্যান করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেছেন: নেতাকর্মীদের চাঙ্গা রাখতেই বিএনপি নেতারা মিথ্যা তথ্য দিচ্ছেন। নির্বাচন নিয়ে সংলাপের দাবি হাস্যকর।

শনিবার রাজধানীর মানিক মিয়া এভিনিউতে বিআরটিএ’র মোবাইল কোর্টের কার্যক্রম পরিদর্শন করেন ওবায়দুল কাদের। এসময় সাংবাদিকদের কাছে তিনি এমন মন্তব্য করেছেন।

বিএনপি ও বাম গনতান্ত্রিক জোটের অভিযোগ প্রসঙ্গে কাদের বলেন: নির্বাচন নিয়ে দেশে বিদেশে কোনো বিতর্ক নেই, বিএনপির অভিযোগ ধোপে টিকবে না। উন্নত গণতান্ত্রিক দেশগুলো দ্রুততম সময়ে আমাদের প্রধানমন্ত্রীকে সমর্থন জানিয়েছে। কাজেই এ ধরনের দাবি অবান্তর, এর কোন যৌক্তিকতা নেই। এটা তাদের মামাবাড়ির আবদার ছাড়া কিছুই নয়।

অক্টোবরে আওয়ামী লীগের কাউন্সিল হবে বলেও এসময় জানান তিনি। বলেন: কাউন্সিল অক্টোবরেই হবে। এটা আমাদের দলের অভ্যন্তরীণ বিষয়। এটা নিয়ে প্রশ্ন কেন?

সড়ক দুর্ঘটনা রোধে পথচারীদের সচেতনতায় গুরুত্বারোপ করে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন: যাত্রীরাও মাঝে মাঝে বেপরোয়া চালকের মতো বেপরোয়া হয়ে যান। সড়ক দুর্ঘটনা শুধু চালকের জন্যই হচ্ছে তা নয়৷ যাত্রীদের ভুলের জন্য দুর্ঘটনা হয়। তারা রাস্তা না দেখেই এপার থেকে ওপার যাতায়াত করে। এ বিষয়ে সাংবাদিকদেরও সচেতন হতে হবে, ক্যাম্পেইন করতে হবে, যাতে সচেতনতা বৃদ্ধি পায়।

জাতীয় নির্চবাচন থাকায় বেশ কিছুদিন বিআরটিএ’র অভিযান বন্ধ থাকায় অনিয়ম বেড়েছে বলেও জানান ওবায়দুল কাদের৷ বলেন: কিছুদিন অভিযান বন্ধ থাকায় অনিয়ম বেড়ে গেছে৷ মাত্র ২ ঘণ্টার ব্যবধানে ৮টি গাড়ি জব্দ, ৩ জনের জেল ও ৯৮ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে। এখন আমাদের জনবল বেড়েছে। ১০ জন ম্যাজিস্ট্রেট কাজ করছেন৷ এ ধরনের অভিযান চলবে।

ফেসবুক মন্তব্য
xxx