নিউজটি পড়া হয়েছে 57

নবীগঞ্জে মাছ ধরতে বাধা দেয়ায় দুর্বৃত্তদের হামলা, একই পরিবারের ৩ জন আহত

স্টাফ রিপোর্টারঃ নবীগঞ্জ উপজেলার কাদমা গ্রামে ফিশারীতে চুরি করে মাছ ধরতে বাধা দেয়ায় দুর্বৃত্তদের হামলায় দিনমজুর পাহারাদার আব্দুল মিয়া (৬০), তাঁর স্ত্রী ফুলকুমারী বেগম (৪৫) ও তাদের পুত্র এমদাদুল মিয়া (২৬) গুরুতর আহত হয়েছেন।

আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয়রা নবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। আহতদের মধ্য ফুলকুমারী বেগমকে আশংকাজনক।

আহতদের সুত্রে জানা যায়, উপজেলার কুর্শি ইউনিয়নের কাদমা গ্রামে অবস্থিত সিরাজুল উলুম মাদরাসার একটি ফিশারিতে শনিবার দিবাগত রাতে সবার অগোচরে একই গ্রামের আনীছ মিয়ার পুত্র আবু তাহের গংরা চুরি করে মাছ ধরতে যায়। সেখানে দায়িত্বপ্রাপ্ত পাহারাদার একই ইউনিয়নের দুর্লভপুর গ্রামের মৃত মবশ্বির আলীর পুত্র আব্দুল মিয়ার নজরে আসলে তাঁদেরকে মাছ ধরতে বাধা প্রদান করেন। এই বিষয়ের জের ধরে পরদির আজ (রবিবার) সকাল অনুমান ৮টার দিকে আবু তাহের তার ভাই শফিক মিয়াসহ একদল লোক দেশীয় অস্ত্রে শস্ত্রে সজ্জ্বিত হয়ে পাহারাদার আব্দুল্লাহ্ মিয়ার বসতঘরে প্রবেশ করে হামলা চালিয়ে তাঁর স্ত্রী, পুত্রসহ তাদেরকে মারাত্বকভাবে প্রহার করে গুরুতর আহত করেন।

পরে স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে নবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করেন। এসময় হামলাকারীরা তাদের গৃহ থেকে ১৫ হাজার টাকাও লুটে নেয় বলে অভিযোগ করেন। এই ঘটনায় এলাকায় টান টান উত্তেজনা বিরাজ করছে।

ফেসবুক মন্তব্য
xxx