নিউজটি পড়া হয়েছে 68

দেশে পৌঁছেছে বিমানের দ্বিতীয় বোয়িং ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার ‘হংসবলাকা’

সিলনিউজ অনলাইনঃ দেশে এসে পৌঁছেছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের দ্বিতীয় বোয়িং ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার ‘হংসবলাকা।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের দ্বিতীয় বোয়িং ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার উড়োজাহাজ শনিবার রাত পৌনে ১২ টা নাগাদ হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের রানওয়েতে অবতরণ করে।

বিমান সূত্রে জানা গেছে, শনিবার (১ ডিসেম্বর) রাতে শাহজালালে অবতরণের পরপরই আনুষ্ঠানিকভাবে বরণ করে নেওয়া হয় ড্রিমলাইনার উড়োজাহাটিকে। এ সময় ওয়াটার ক্যানন স্যালুট দেওয়া হয়। বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও এএম মোসাদ্দিক আহমেদসহ এয়ারলাইন্সের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা শাহজালাল বিমানবন্দরে উড়োজাহাজটিকে স্বাগত জানান।

‘হংসবলাকা’ নামের এই আকাশযান বাংলাদেশ সময় শনিবার বিকাল সাড়ে ৪টায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের রানওয়েতে অবতরণ করার কথা ছিল কিন্তু উড্ডয়নের আগ মুহূর্তে বিমানটির ইঞ্জিনের রিডিং এ ভুল ধরেন পাইলট । অতঃপর তিনি বিষয়টি তাৎক্ষণিক বোয়িং কর্তৃপক্ষকে জানান। এরপর বোয়িং এর প্রকৌশলীরা প্রায় ৫ ঘন্টা পরীক্ষা নিরীক্ষার পর ইঞ্জিনের রিডিং ত্রুটি মেরামত করে ড্রিমলাইনারকে যাত্রার জন্য প্রস্তত করেন। এ কারনে বিমানটি ৭ ঘণ্টা বিলম্বে উড্ডয়ন করে।একারনে নির্ধারিত সময় থেকে ৭ ঘণ্টা দেরিতে ড্রিমলাইনারটি দেশে পৌছায়।

এর আগে, যুক্তরাষ্ট্রে সিয়াটলের এভারেটে মার্কিন বিমান নির্মাতা প্রতিষ্ঠান বোয়িং ২৯ নভেম্বর সকালে চাবি দিয়ে হংসবলাকার মালিকানা হস্তান্তর করেন। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের পরিচালক (ফ্লাইট অপারেশন) ক্যাপ্টেন ফারহাত হাসান জামিল এটি বুঝে নেন। এ সময় ছিলেন বোয়িং পরিচালক (ডেলিভারি কনট্রাক) জন বর্বার ও উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক (মধ্যপ্রাচ্য, দক্ষিণ এশিয়া) এহসান রাজপুত।

ড্রিমলাইনারে আসনসংখ্যা ২৭১টি। এর মধ্যে বিজনেস ক্লাসে আসন রয়েছে ২৪টি, বাকি ২৪৭টি আসন ইকোনমি ক্লাসের। বিজনেস ক্লাসে ২৪টি আসন ১৮০ ডিগ্রি পর্যন্ত সম্পূর্ণ ফ্ল্যাটবেড হওয়ায় যাত্রীরা আরমদায়কভাবে বিশ্রাম নিতে পারবেন। ড্রিমলাইনারে ৪৩ হাজার ফুট উচ্চতায় যাত্রীরা ওয়াই-ফাই সুবিধা পাবেন।

সুত্রঃ এভিয়েশন নিউজ

ফেসবুক মন্তব্য
xxx