ঢাকা টেস্টের একাদশে বড় রদবদল, থাকছেন না কোনো পেসার

সিলনিউজ ক্রিকেট ডেস্কঃ দুই ম্যাচ সিরিজের শেষ ও দ্বিতীয় টেস্টে মুখোমুখি শুক্রবার (৩০ ডিসেম্বর) হবে বাংলাদেশ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দল। প্রতিপক্ষকে হোয়াইটওয়াশ করার সংকল্প টাইগার অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের। লক্ষ্য পূরণে টাইগার একাদশে থাকছে বড় চমক। খেলানো হবে না কোন পেসার। ব্যাটিং ও স্পিন নির্ভর দল সাজাবে বাংলাদেশ। এমনটাই জানিয়েছে বিসিবির নির্ভরযোগ্য একটি সূত্র।

বৃহস্পতিবার (২৯ নভেম্বর) সকালে এসেই কোচ স্টিভ রোডস আর অধিনায়ক সাকিবের উইকেট দর্শন। কারণ, অতীতে উইকেটের বেখেয়ালি আচরণ। চট্টগ্রাম টেস্ট জেতার পরেও তীব্র জয়ের ক্ষুধায় ভুগছে বাংলাদেশ। ৯ বছর পর পূর্ণ শক্তির ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হোয়াইটওয়াশ করার সুবর্ণ এক সুযোগ টাইগারদের সামনে। এমন সুযোগ বারবার আসে না। তাই প্রতিপক্ষকে বিন্দুমাত্র সুযোগ দিতে চান অধিনায়ক সাকিব। অলআউট ক্রিকেট খেলেই স্মরণীয় এক অর্জনের গল্প লিখতে চান বাংলাদেশের জন্য।

‘আমরা অবশ্যই জেতার জন্য খেলবো। তবে যদি এমন পরিস্থিতি তৈরি হয় যে ড্র করতে হবে তখন সেটা দেখা যাবে কিন্তু আমাদের প্রথম টার্গেট ম্যাচটা জেতা।’ বলছিলেন সাকিব।

‘আমাদের ওপেনিং কারা করবে সেটা আমরা মোটামুটি জানি। কিন্তু যদি মুশফিক ভাই কোনভাবে কিপিং করতে না পারে তাহলে লিটন করবে। আর ওর জন্য কিপিং করে ওপেনিং করাটা কঠিন হবে।’

এদিকে বিসিবির একটি সূত্র জানিয়েছে, বাংলাদেশ একাদশে বড় চমক থাকছে। কোন পেসার খেলাবে না ঢাকা টেস্টে। প্রথম টেস্টে মোস্তাফিজ দুই ইনিংসে করেছিলেন মোটে ৪ ওভার। তাই তার বদলে খেলবেন জাতীয় দলের হয়ে দুই টেস্টে মাঠে নামা আরিফুল হক। এছাড়া অভিষেক হচ্ছে সাদমান ইসলাম অনিকের। মুশফিক আঙুলে চোট পাওয়ায় ব্যাকআপ উইকেটকিপার হিসেবে লিটনকে হঠাৎ ডাকা হলেও, মুশফিকের জন্য শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত অপেক্ষা করবে টিম ম্যানেজমেন্ট।

প্রথম টেস্টে উইন্ডিজকে হারিয়েছে স্পিন জাদুতেই। তাইজুল ইসলাম ও নাঈম হাসানের পাশাপাশি বল হাতে জ্বলে উঠেছিলেন সাকিব আল হাসান ও মেহেদী হাসান মিরাজ। তবে দলে যে চার স্পিনারে চ্যালেঞ্জ রয়েছে সেটি জানালেন বাংলাদেশ অধিনায়ক সাকিব।

‘এক দিক থেকে চ্যালেঞ্জিং হলেও আরেক দিক থেকে অনেক এক্সাইটিং, কারণ সবাই চেষ্টা করছে দলের প্রয়োজনে সবাই একটা উইকেট নিতে বা ভালো বোলিং করার। আর দেখতে আমার কাছে ভালো লেগেছে, সব সময় দুই প্রান্ত থেকে অ্যাটাক করতে পেরেছি, যেটা আমার কাছে মনে হয়েছে অনেক ভালো একটা দিক। আমাদের চেষ্টা থাকবে এই টেস্টেও যেন দুই দিক থেকে অ্যাটাক করতে পারি এবং পার্টনারশিপে ভালো বল করতে পারি। এটা আমার কাছে খুবই গুরুত্বপূর্ণ মনে হয়। সাধারণত যে উইকেট হয়ে আসছে ওরকম যদি হয় তাহলে পার্টনারশিপটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ হবে।’

মিরপুরে দু’দলের ম্যাচটি শুরু হবে শুক্রবার সকাল সাড়ে ন’টায়।

স্বাগতিকরা এ ম্যাচ জিতলে টেস্ট র‌্যাংকিংয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের রেটিং পয়েন্ট হবে ৭০ আর বাংলাদেশের হবে ৬৯।

ঢাকা টেস্টে বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ:

সৌম্য সরকার, সাদমান ইসলাম, মুমিনুল হক, মোহাম্মদ মিঠুন, সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), মুশফিকুর রহিম, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, মেহেদী হাসান মিরাজ, নাঈম হাসান, তাইজুল ইসলাম এবং আরিফুল হক।

সূত্রঃ সময় নিউজ

ফেসবুক মন্তব্য
xxx