দাবি একটাই সিলেট-২ আসনে নৌকা চাই

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ আওয়ামী লীগ থেকে নৌকা প্রতীক দিয়ে প্রার্থী করার দাবিতে উত্তাল হয়ে ওঠেছে সিলেট-২ আসন। এ আসনের অন্তর্ভূক্ত ওসমানীনগর উপজেলায় দফায় দফায় হয়েছে বিক্ষোভ। আর বিশ্বনাথ উপজেলায়ও নেতাকর্মীরা রাজপথে নেমেছেন। নৌকা প্রতীকের দাবিতে বিবদমান সকল গ্রুপের নেতাকর্মীরাই ঐক্যবদ্ধভাবে রাজপথে নামছেন। সিলেট-ঢাকা মহাসড়কে তিন দফায় অনুষ্ঠিত মিছিলে বিবদমান গ্রুপের নেতাকর্মীসহ নৌকার প্রতীকের মনোনয়নপ্রত্যাশী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী ও যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরীর সমর্থকেরা সমন্বিতভাবে অংশ নেন।
আজ (সোমবার) সকাল ১১ টার দিকে একযোগে উপজেলার দয়ামীর, কুরুয়া, তাজপুর, গোয়ালা বাজার, বেগমপুর, সাদিপুর শেরপুর এলাকায় বিক্ষোভ মিছিলে নেতাকর্মীরা সিলেট-২ আসনে নৌকা প্রতীক দাবি করে মিছিল ও সমাবেশ করেন।
“আমাদের কোনো দাবি নাই, সিলেট-২ আসনে নৌকা চাই” বলে সমবেত নেতাকর্মীরা মুহুর্মুহু স্লোগান দেন। পৃথক মিছিল একপর্যায়ে সিলেট-ঢাকা মহাসড়ক অবরোধ করে। মহাসড়কে দু’পাশে যানজট দেখা দেয়। মিছিল শেষে পৃথক সমাবেশে বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা বলেন, ব্যক্তি মুখ্য বিষয় নয়, নৌকা প্রতীকে দলের যে কাউকে মনোনয়ন দেয়া হলে দলীয় স্বার্থে তারা ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করবেন। উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নে বিক্ষোভ মিছিল কর্মসূচীর ঘোষণা করেন তারা। পৃথক সমাবেশে বক্তব্য রাখেন উপজেলা যুবলীগের সভাপতি আনা মিয়া, সিনিয়র সহ-সভাপতি জাভেদ আহমদ আম্বিয়া, সাধারণ সম্পাদক আলতাফুর রহমান সুহেল, সহ-সাধারণ সম্পাদক দিলদার আলী, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহবায়ক চঞ্চল পাল, যুক্তরাজ্য স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা অরুণোদয় পাল ঝলক, জেলা যুবলীগ নেতা কিবরিয়া মিয়া, যুবলীগে নেতা মুকিদ মিয়া ও মঈনুদ্দিন মোহন প্রমুখ।
এদিকে, বিশ্বনাথ উপজেলায়ও আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগসহ অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা নৌকা প্রতীকের দাবিতে সড়কে নেমে আসেন। তারা দফায় দফায় বিক্ষোভ মিছিল করেন।
প্রসঙ্গত, বিগত সংসদ নির্বাচনে আসন সমন্বয়ের কারণে আওয়ামী লীগ সিলেট-২ আসনটি মহাজোটের শরীকদল জাতীয় পার্টিকে ছেড়ে দেয়। সে নির্বাচনে জাপা নেতা ইয়াহইয়া চৌধুরী এহিয়া বিজয়ী হন। একাদশ জাতীয় নির্বাচনে সিলেটের পাঁচটি আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী নিশ্চিত হলেও সিলেট-২ আসনে কাউকেই প্রার্থী ঘোষণা করা হয়নি। আসনটি জাতীয় পার্টিকে আবারও ছেড়ে দেয়া হতে পারে গুঞ্জন রয়েছে।
ফেসবুক মন্তব্য
xxx