রবিউল আউয়াল উপলক্ষে আলোচনা ও কবিতা পাঠের আসর অনুষ্ঠিত

সিলনিউজ২৪.কমঃ দেশবরেণ্য কবি সাজ্জাদ হোসাইন খান বলেছেন, মানবতার মুক্তিরদূত রাসূল (সাঃ) এর আদর্শ অনুসরণের মাধ্যমেই মানবজাতির একমাত্র শান্তি নিহিত। পৃথিবীর অশান্ত পরিবেশকে শান্ত করে আলোকিত করতে রাসূলের জীবনাদর্শ প্রতিষ্ঠার বিকল্প নেই।মানুষগুলোকে সত্যিকার মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে মানুষকে রাসূলের আদর্শের দিকে ফিরে যেতে হবে।সিলেট সংস্কৃতিকেন্দ্র-এর উদ্যোগে পবিত্র মাহে রবিউল আউয়ালউ পলক্ষে আলোচনা সভা ও কবিতার পাঠের আসরে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সিলেট সংস্কৃতি কেন্দ্রের সভাপতি, শিক্ষাবিদ অধ্যক্ষ কবি কালাম আজাদের সভাপতিত্বে গত বুধবার (২১ নভেম্বর) সিলেট কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের সাহিত্য আসর কক্ষে এই অনুষ্ঠানের  আয়োজন করা হয়। সিলেট সংস্কৃতি কেন্দ্রের পরিচালক প্রাবন্ধিক জাহেদুর রহমান চৌধুরীর স্বাগত বক্তব্যে শুরু হওয়া সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট কবি মুকুল চৌধুরী, সিলেট জেলাবারের বিশিষ্ট আইনজীবী এডভোকেট আলিম উদ্দিন।ছড়াকার ও প্রকাশক কামরুল আলমের সঞ্চালনায় সভায় শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সিলেট আইডিয়াল মাদরাসার প্রিন্সিপাল ড. এ এইচ এম সোলায়মান, অধ্যাপক কবি বাছিত ইবনে হাবীব, দৈনিক সংগ্রামের ব্যুরো চীফ সাংবাদিক কবির আহমদ, প্রাবন্ধিক কবি মুহাম্মদ আব্দুল হক, সিলেট জেলা বারের বিশিষ্ট আইনজীবী জুনেদ আহমদ, যুবসংগঠক রেজাউল করীম।স্বরচিত লেখা পাঠে অংশ নেন কলামিস্ট এম. আশরাফ আলী, গল্পকার তাসলিমা খানম বীথি, সাংবাদিক মো. আব্দুল বাছিত, ছড়াকার আবুজর মাহতাবী, সৈয়দ মুক্তদা হামিদ, কবি জুনেদ আহমদ, চৌধুরী রাহাত, ছড়াকার মুয়াজ বিন এনাম, কবি সৈয়দ আসলাম
হোসেন, কবি আব্দুল কাদির জীবন, কাজী নজরুল ইসলাম’র ‘ওমর ফারুক’ কবিতা আবৃত্তি করেন শাহজালাল পলাশ, নাতে রাসূল পরিবেশন করেন কণ্ঠশিল্পী শামসুল ইসলাম এবং অলি উল্লাহ। অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন আবু বকর সাব্বির, পবিত্রমাহে রবিউল আউয়াল উপলক্ষে নাতে রাসূল পরিবেশন করেন সিলেট দিশারী শিল্পীগোষ্ঠীর শিল্পীবৃন্দ। এছাড়া সভায় সিলেটের সাহিত্য-সংস্কৃতি বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।স্বাগত বক্তব্যে সিলেট সংস্কৃতি কেন্দ্রের পরিচালক প্রাবন্ধিক জাহেদুর রহমান চৌধুরী বলেন, রাসূলের আদর্শ অনুসরণেই মানবতার মুক্তি নিহিত। তাঁর জীবনাদর্শকে উপলব্দি করার এবং সাহিত্য সাধনায় রাসূল প্রশস্তিতে সবাইকে এগিয়ে আসতেহবে।বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সিলেট জেলা বারের বিশিষ্ট আইনজীবী এডভোকেট আলিম উদ্দিন বলেন, পৃথিবীতে রাসূলের জন্মদিন নিয়ে মুসলমানদের মধ্যে বিভ্রান্তি ছড়িয়ে দেয়ার অপচেষ্টা চলছে। রাসূলের জন্মদিন পালন নয়, রাসূলের আদর্শ প্রতিষ্ঠা ও অনুসরণের মাধ্যমেই দুনিয়া ও আখেরাতের শান্তি নিশ্চিত করতে হবে।কবি মুকুল চৌধুরী বলেন, রাসূল সাঃ সাহিত্য-সংস্কৃতির পৃষ্ঠপোষক ছিলেন। কবিতা শুনতেন, কবিদেরকে ভালোবাসতেন, উপহার দিতেন। বাস্তব জীবনে রাসূলের আদর্শ অনুসরণ করার পাশাপাশি সাহিত্যে রাসূলের জীবনাদর্শ তুলে ধরতে হবে।সভাপতির বক্তব্যে সিলেট সংস্কৃতিকেন্দ্রের সভাপতি অধ্যক্ষ কবি কালাম আজাদ বলেন, পৃথিবীতে রাসূল সাঃ এর জীবনাদর্শ ঐতিহাসিকভাবে সংরক্ষিত। রাসূলের জীবন মানুষের জন্য অনুপম আদর্শ। এই আদর্শকে জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে অনুসরণ করতে হবে।

ফেসবুক মন্তব্য
xxx