দেশের উন্নয়নযাত্রার অংশীদার হিসেবে যেকোন দায়িত্ব পালনে প্রস্তুত সেনাবাহিনী।

সিলনিউজ অনলাইনঃ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের উন্নয়নযাত্রার অংশীদার হিসেবে যেকোন দায়িত্ব পালনে প্রস্তুত সেনাবাহিনী। পাশাপাশি মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা নতুন প্রজন্মের মধ্যে ছড়িয়ে দিতেও সেনা বাহিনীর তৎপরতা অব্যাহত থাকবে বলেও জানিয়েছেন সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ।

আজ ২২ নভেম্বর (বৃহস্পতিবার) সকালে ঢাকা ক্যান্টনমেন্টে খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা ও শান্তিকালীন পদকপ্রাপ্ত সেনা সদস্যদের সংবর্ধনা ও পদক প্রদান অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন সেনাপ্রধান।

ঢাকা ক্যান্টনমেন্টে খেতাবপ্রাপ্ত সেনা সদস্য ও ২০১৭-১৮ সালে শান্তিকালীন পদকপ্রাপ্ত সেনা সদস্যদের সেনা প্রধানের সংবর্ধনা ও পদক প্রধান অনুষ্ঠান। এতে আমন্ত্রিত হয়ে যোগ দেন বেশ কজন সাবেক সেনা প্রধান। পরে পদকপ্রাপ্তদের পদক ও সম্মাননা স্মারক তুলে দেন জেনারেল আজিজ আহমেদ।

মুক্তিযুদ্ধের গৌরবগাঁথায় আলোকপাত করতে গিয়ে সেনা প্রধান শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অনন্য সাধারণ নেতৃত্বের কথা। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা রক্ষা ও তা দিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নানা উদ্যোগের কথাও তুলে ধরেন তিনি।

যুদ্ধবিধ্বস্ত অর্থনীতি নিয়ে বঙ্গবন্ধুর যাত্রা শুরুর প্রসঙ্গ টেনে তার কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদা অর্জনের পেছনের নানা বিষয় সামনে আনেন সেনা প্রধান। পদ্মা সেতুসহ দেশের নানা উন্নয়ন প্রকল্পে সেনাবাহিনীকে সরকারের অংশীদার উল্লেখ করে, সে সমর্থন অব্যাহত রাখার প্রত্যয়ও জানান জেনালেন আজিজ আহমেদ।

মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উন্নত সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে, সরকারের যেকোন উদ্যোগ এগিয়ে নিতে সেনাবাহিনী সর্বোচ্চ মেধা-শ্রম দেবে বলেও জানান সেনাপ্রধান।

সিল/ইন্ডিপেনডেন্ট

ফেসবুক মন্তব্য
xxx