বাসার ছাদেও থার্টিফাস্ট নাইটের অনুষ্ঠান করা যাবে না।

সিলনিউজঃ এবার থার্টিফার্স্ট নাইট উদযাপন বাসার ছাদেও করা যাবে না। আসন্ন সংসদ নির্বাচনের পরদিন হওয়ায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

আজ (রোববার) দুপুরে স্বরাষ্টমন্ত্রণালয়ে আইনশৃংখলা রক্ষাবিহনীর সাথে বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এসময় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন, খৃষ্টান ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব বড় দিনে নিরাপত্তা চাদরে ঢাকা থাকবে সারা দেশের চার্চ।

মন্ত্রী আরো বলেন, ৩১ ডিসেম্বর বিকেল থেকে পরের দিন ১ জানুয়ারি সন্ধ্যা পর্যন্ত ক্লাবে কোনো বার খোলা থাকবে না। থার্টিফাস্ট নাইটে কোনো বৈধ অস্ত্র বহন করা যাবে না। ওড়ানো যাবে না কোনো বেলুন, ফানুস, ফোটানো যাবে না আতশবাজি, পটকা।

এছাড়া নির্বাচন কমিশন যেভাবে চাইবে সেভাবেই আইনশৃংখলা রক্ষাবাহিনী মোতায়েন থাকবে বলেও জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

সভায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সচিব মোস্তাফা কামাল উদ্দীন, সুরক্ষাসেবা বিভাগের সচিব ফরিদ উদ্দিন আহম্মদ চৌধুরী, র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ, খ্রিস্টান অ্যাসোসিয়েশনের নেতা ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

ফেসবুক মন্তব্য
xxx