জগন্নাথপুরে বৈঞ্চব পদাবলির মহারাজা রাধারমন দত্তের ১০৩তম তিরোধান তিথি স্মরনে ৩ দিন ব্যাপী লীলা সংকীর্ত্তন মহোৎসব সম্পন্ন

বিপ্লব দেব নাথ, জগন্নাথপুর প্রতিনিধি: বৈঞ্চব পদাবলির মহারাজা প্রায় ৩সহ¯্রাধিক গানের গীতিকার উপমহাদেশের আধ্যাত্মিক মরমী সাধক কবি শ্রী শ্রী রাধারমন দত্ত পুরকায়স্থের ১০৩তম তিরোধান তিথি স্মরনে অষ্ট প্রহর ব্যাপী রাধা গোবিন্দের নাম ও লীলা সংকীর্ত্তন মহোৎসব অনুষ্টিত হয়েছে। মহান এ সাধক কবির জন্মস্থান জগন্নাথপুর উপজেলার পৌর শহরের কেশবপুর গ্রামে রাধা রমন সমাধি মন্দির প্রাঙ্গনে রাধা রমন স্মৃতি সংঘের আয়োজনে ১২নভেম্বর সোমবার থেকে শুরু হওয়া ৩দিন ব্যাপী লীলা সংকীর্ত্তন মহোৎসব ১৪নভেম্বর বুধবার সম্পন্ন হয়। শ্রী শ্রী বিশ্বাম্বর দাশ বৈঞ্চব বাবাজী জকিগঞ্জের পরিচালনায় মহোৎসবে শ্রীমদ্ভগবত পাঠ করেন জগন্নাথপুর পৌর শহরের কেশবপুর গ্রামের বাসিন্দা শ্রীযুক্ত ব্রজেন্দ্র কুমার দাস ও স্থানীয় ভক্ত বৃন্দ। ঐ দিন রাত ৮টায় জকিগঞ্জের গৌর সুন্দর দাস গোপাল বাবাজির পরিবেশনায় শুভ মঙ্গলঘট স্থাপন শুভ অধিবাস কীর্ত্তন অনুষ্টিত হয়। মহোৎসবের ২য় দিন মঙ্গলবার নাম সুধা পরিবেশনায় ছিলেন জকিগঞ্জের গৌর সুন্দর দাস গোপাল বাবাজী, ছাতক উপজেলার পীরপুরের শ্রী শ্রী রাধা মাধব সেবক সংঘের স্বপন মালাকার, সিলেট বাগবাড়ীর সুবল সম্প্রদায়ের রিংকু চন্দ্র দাস, হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলার রিফাতপুরের বুড়া ঠাকুর সম্প্রদায়ের জোৎ¯œা রানী দাস। বুধবার মহোৎসবের সমাপনী অনুষ্টানে জকিগঞ্জের গৌর সুন্দর দাস গোপাল বাবাজীর পরিবেশনায় দধির ভান্ড ভঞ্জন অনুষ্টিত হয়। ৩দিন ব্যাপী মহোৎসবে বিভিন্ন এলাকা থেকে রাধা রমন দত্তের ভক্ত বৃন্দের আগমনে উৎসবটি আনন্দ মুখর হয়ে উঠে। মহোৎসবের সার্বিক সহযোগিতায় উৎসব অঙ্গনে বিভিন্ন দায়িত্ব পালন করেছেন রাধা রমন স্মৃতি সংঘের উপদেষ্টা মানিক লাল দে, সুধীর বৈদ্য, আশিষ লাল দে, নিরেন দেবনাথ, ধীরু সরকার নান্টু মালাকার, বিরেন্দ্র বৈদ্য, ডা: শিমুল দাস, হীরা লাল সরকার, সুবোধ বৈদ্য, খোকা দাস, নিকাশ সরকার, শংকর দাশ, বিরেন্দ্র দেবনাথ, গৌরহরি দেব,কর্ন সরকার,ধীরেন্দ্র বৈদ্য, কর্ন দেবনাথ, মনোরঞ্জন দেবনাথ, অমর চন্দ্র দাস, রঞ্জিত মালাকার, রঞ্জিত দে, অজিত দে, বাবুল দাস, রাধারমন স্মৃতি সংঘের সভাপতি সুশীল বৈদ্য, সহ-সভাপতি নিশী দাস, বিজয় বৈদ্য, সঞ্জু দাস, সাধারন সম্পাদক রুনু মালাকার সাধু, সহ সাধারন সম্পাদক মৃদুল কান্তি দেব, স্বপন বৈদ্য, নিতাই দে, সমিরন রায়, সুজিত দেব নাথ, সাংগঠনিক সম্পাদক নিখিল দাশ, মিন্টু মালাকার, নন্দ লাল দাশ, কোষাধ্যক্ষ বাবুল মালাকার, সহ কোষাধ্যক্ষ বিপুল বৈদ্য, লিটন দাশ, অরুন মালাকার, প্রচার সম্পাদক রাজমল্লিক, বিকাশ বৈদ্য, সহ প্রচার সম্পাদক নিকলেশ দেবনাথ, খোকন সরকার, বিজয় মালাকার, সাংস্কৃতিক সম্পাদক নকুল দাস, নিপেশ দেবনাথ, সজল বিশ্বাস, সহ সাংস্কৃতিক সম্পাদক বিজন দেব নাথ, সজল বৈদ্য, গোবিন্দ মালাকার, কাজল মালাকার, সিপন দাস, সুমন বৈদ্য, দপ্তর সম্পাদক আনন্দ মালাকার, সহ-দপ্তর সম্পাদক সন্তুস দাস, সঞ্জু বৈদ্য, লিটন দাস, আলোক সজ্জা সম্পাদক আকল মালাকার, সুমন সরকার, সুকেশ বৈদ্য, লিটন সরকার, সতন সরকার, রজত বাবু, নকুল বিশ্বাস, আপ্যায়ন সম্পাদক কিতেশ সরকার, ভানু চন্দ্র, রানা দাস, দিপক সরকার, জীবন সরকার সজল মালাকার, কাজল মালাকার, লাখন দাস, দ্বিপন দাস, খোকন চন্দ্র প্রমূখ। রাধা রমন দত্ত পুরকায়স্থের ১০৩তম তিরোধান তিথি স্মরনে অষ্ট প্রহর ব্যাপী রাধা গোবিন্দের নাম ও লীলা সংকীর্ত্তন মহোৎসবকে ঘীরে রাধা রমন সমাধি মন্দিরসহ আশ-পাশ এলাকায় ৩দিন ব্যাপী উৎসবের আমেজ বিরাজ করে। উৎসব প্রাঙ্গনে শিশুদের খেলনা ও গ্রামীণ সংস্কৃতির বিভিন্ন পণ্যের মেলায় শিশু কিশোর ও সকল বয়েসী নারী পুরুষদের উপ”ে পড়া ভীড় ছিল লক্ষ্যনীয়।

ফেসবুক মন্তব্য
xxx