আগুন দেওয়া সেই যুবক ‘শনাক্ত’

সিলনিউজ অনলাইন ডেস্কঃ  নয়াপল্টনে বিএনপির কার্যালয়ে সামনে বুধবার (১৪ নভেম্বর) দুপুরে নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়। বিএনপি কার্যালয়ের সামনে অবস্থানরত পুলিশের দুটি গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেন তারা। এসময় তারা পুলিশের অন্য আরেকটি গাড়িতে ব্যাপক ভাঙচুর করেন।  পুলিশের গাড়িসহ অন্যান্য গাড়ি ভাঙচুরের সময় গাড়ির উপরে উঠে উল্লাস করতে দেখা যায় নেতাকর্মীদের।

এদিকে, সংঘর্ষ চলাকালে পুলিশের গাড়িতে দিয়াশলাই দিয়ে আগুন লাগানো যুবক ও অপর এক যুবককে পুলিশের গাড়ির ওপর লাফাতে দেখা যায়। এই দুজনকেই শনাক্ত করা হয়েছে। পুলিশের মতিঝিল বিভাগের সহকারী কমিশনার মিশু বিশ্বাস এ তথ্য জানিয়েছেন।

মিশু বিশ্বাসের ভাষ্য, পুলিশের গাড়িতে যে যুবক আগুন দিয়েছেন, তার নাম শাহজালাল খন্দকার। তিনি পল্টন থানা ছাত্রদলের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য।

একই ঘটনার সময় পুলিশের গাড়ির ওপর যে যুবককে লাফাতে দেখা গেছে, তাকেও শনাক্ত করা হয়েছে বলে দাবি পুলিশের মতিঝিল বিভাগের এই সহকারী কমিশনারের। তার ভাষ্য, এই যুবকও ছাত্রদলের।

গাড়ি ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ, রাস্তা অবরোধ, পুলিশকে মারধর ও সরকারি কাজে বাধা দেয়ার অভিযোগে পল্টন থানায় তিনটি মামলা করা হয়। এ ঘটনায় অন্তত ৪০ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

গতকালকের ব্যাপক সংঘর্ষে আহত হন কয়েকজন পুলিশ সদস্য।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির মনোনয়ন ফরম বিক্রি কেন্দ্র করে সড়কে বিএনপি নেতাকর্মীরা ভিড় করছিলেন। এতে সড়কে যান চলাচল ব্যাহত হচ্ছিল। পুলিশ সড়ক খালি করার চেষ্টা করছিল। এ থেকেই ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার সূত্রপাত।

ফেসবুক মন্তব্য
xxx