হৃদয়ে ত্যাগের মানসিকতা নিয়ে সম্মিলিতভাবে কাজ করতে হবে : ডা. হিমাংশু লাল রায়

সিলনিউজ২৪.কমঃ সিলেটের সিভিল সার্জন ডা. হিমাংশু লাল রায় বলেছেন, সরকারের একার পক্ষে সামগ্রিক উন্নয়ন ত্বরান্বিত করা সম্ভব নয়। আর্তসামাজিক উন্নয়নের জন্য সম্মিলিত প্রচেষ্টা জরুরী। হৃদয়ের মধ্যে ত্যাগের মানসিকতা থাকলে সত্যিকার ভাবে উন্নয়নে অবদান রাখা সম্ভব।আর্তসামাজিক উন্নয়নে সিফডিয়ার এমন উদ্যোগ সত্যিই প্রশংসনীয়।

সিলেট সেন্টার ফর ইনফরমেশন এন্ড মাস মিডিয়া (সিফডিয়া)-এর নগরীর মিরবক্সটুলাস্থ লায়ন্স শিশু হাসপাতালে সাকার মেশিন প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।লায়ন্স শিশু হাসপাতালের চেয়ারম্যান জহির বকত’র সভাপতিত্বে বুধবার (১৪ নভেম্বর) সকালে হাসপাতালের হলরুমে মেশিন প্রদানঅনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন লায়ন্স ৩১৫ বি১বাংলাদেশ-এর প্রাক্তন জেলা গভর্নর ডা. আজিজুর রহমান, সমাজসেবাঅধিদপ্তর, সিলেট-এর সহকারী পরিচালক মো. নাজিম উদ্দিন।সিফডিয়ার নির্বাহী পরিচালক রোটারিয়ান আবদুল মুহিত দিদারেরপরিচালনায় মেশিন প্রদান অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেনসিফডিয়ার চেয়ারম্যান অধ্যাপক শেখ মো. আব্দুর রশীদ, শুভেচ্ছা বক্তব্যরাখেন কেমুসাস মতিন উদ্দিন আহমদ জাদুঘরের পরিচালক ডা. মোস্তফাশাহজামান চৌধুরী বাহার, বাংলাদেশ ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনসিলেট বিভাগীয় কমিটির সভাপতি আব্দুল বাতিন ফয়সল।অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন লায়ন্স শিশু হাসপাতালের প্রাক্তন চেয়ারম্যাননূর আহমদ, সিলেট উইমেন্স মেডিকেল কলেজের চর্ম ও যৌন রোগ বিভাগেরবিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডা. তহুর আব্দুল্লাহ চৌধুরী, সিলেট সদরউপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আহমদ সিরাজুমমুনির, সিফডিয়ার জয়েন্স সেক্রেটারী এডভোকেট জুনেদ আহমদ, লায়ন্সক্লাব সিলেট-এর সহ সভাপতি ডা. সোলাইমান আহমদ, সেক্রেটারীমুহিতুর রহমান, শিশু হাসপাতালের কনসালটেন্ট ডা. রনজিত দেবনাথ,এডভোকেট সৈয়দ কাওছার আহমদ, ডা. মির্জা ফাহমিদা বেগম, সিলেটএক্সপ্রেসের স্টাফ রিপোর্টার মো. আব্দুল বাছিত, সিফডিয়ার কর্মীইমাদ হোসেন প্রমুখ। অনুষ্ঠানের শেষে লায়ন্স শিশু হাসপাতালের চেয়ারম্যান
জহির বকত’র কাছে প্রধান অতিথি সিলেটের সিভিল সার্জন ডা.হিমাংশু লাল রায়ের মাধ্যমে সাকার মেশিন তুলে দেন সিফডিয়ার নেতৃবৃন্দ। এছাড়া অনুষ্ঠানে শিশু হাসপাতালের বিভিন্ন স্তরের ডাক্তার,কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং সিফডিয়ার নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

ফেসবুক মন্তব্য
xxx