‘স্বপ্নের ঠিকানা’সহ ২১টি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সিলনিউজ অনলাইনঃ পটুয়াখালীর পায়রা তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণে ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য আবাসন প্রকল্প ‘স্বপ্নের ঠিকানা’সহ ২১টি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আজ ২৭ অক্টোবর (শনিবার) দুপুরে এসব প্রকল্পের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর গত ১০ বছরে দেশে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। রাস্তা-ঘাট, ব্রিজ-কালভার্স-উড়ালসেতু, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, অর্থনীতি সব দিকে প্রভুত উন্নয়ন হয়েছে। এসব উন্নয়ন করতে গিয়ে মানুষ  যেন ভোগান্তির শিকার না হয় সেদিকে দৃষ্টি রেখেছে সরকার।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, দক্ষিণাঞ্চলে ৩০ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনের লক্ষ্যে উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। সেই লক্ষ্য শিগগিরই বাস্তবায়ন হবে। তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রটি হলে দক্ষিণাঞ্চলের চেহারা বদলে যাবে। এখানে শিল্পকারখানা হবে। মানুষের কর্মসংস্থান হবে। দারিদ্র দূর হবে। প্রচুর বিনিয়োগ হবে। এ অঞ্চলের মানুষের জীবন মান উন্নত হবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্বোধন করা অন্য প্রকল্পগুলো হচ্ছে- পটুয়াখালী সরকারি কলেজের পাঁচতলা গার্লস হোস্টেল ও শিক্ষা কাম-পরীক্ষা হল নির্মাণ কাজ, ইসহাক মডেল ডিগ্রি কলেজ, মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি কলেজ, আলহাজ্ব জালাল উদ্দিন কলেজ, হাজী আক্কেল আলী হাওলাদার কলেজে চারতলা শিক্ষা ভবনের নির্মাণ কাজ, কুয়াকাটা খানাবাদ কলেজ, সুবিদ খালী ডিগ্রি কলেজ ও দুমকি জনতা ডিগ্রি কলেজের চারতলা শিক্ষা ভবন নির্মাণ কাজ, দুমকি উপজেলার শতভাগ বিদ্যুতায়ন, মির্জাগঞ্জ ৩৩/১১ কেভি বিদ্যুৎ স্টেশন, পায়রাবন্দর শেখ হাসিনা সড়ক এবং পায়রাবন্দর সার্ভিস জেটি, মসজিদ, অফিসার গেস্ট হাউস ও স্টাফ ডরমেটরি।

এছাড়াও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পটুয়াখালী সরকারি কলেজের পাঁচতলা বিজ্ঞান ভবন, শ্রীমান্ত নদীতে ৯৬ মিটার সেতু, পটুয়াখালী জেলার কলাপাড়া ও মির্জাগঞ্জ উপজেলায় কৃষক প্রশিক্ষণ কেন্দ্র (তৃতীয় পর্ব) প্রকল্পের আওতায় দুটি কৃষক প্রশিক্ষণ কেন্দ্র এবং পায়রাবন্দর প্রকল্পের জন্য ক্ষতিগ্রস্ত লোকদের পুনর্বাসন এলাকার ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।

এরপর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরগুনায় যাবেন। সেখানে ২১টি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করবেন। বিকেল ৩টায় তালতলী সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে ভাষণ দেবেন তিনি।

সূত্রঃ সময় টিভি/একুশে

ফেসবুক মন্তব্য
xxx