শেখ হাসিনার নৌকাকে আবারো বিজয়ী করলে দেশে দরিদ্রতা কমে আসবে : অর্থমন্ত্রী

মো. মতিউর রহমান, বিমানবন্দর থেকেঃ- সিলেট সদর উপজেলার খাদিমনগর ইউনিয়নের বড়শলা বাজারে সিলেট সদর উপজেলায় ১০ বছরে উন্নয়ন ক্ষেত্রে অসামান্য অবদান রাখায় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত এমপিকে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ এর খাদিমনগর শাখার উদ্যোগে ২৫ অক্টোবর বৃহস্পতিবার রাতে এক বিশাল গণ সংবর্ধনার প্রধান করা হয়।

ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ তারা মিয়ার সভাপতিত্বে, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মালিকের পরিচালনায় ও বশির আহমদ মেম্বারের পবিত্র কোরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে গণ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সংবর্ধিত অতিথি ও গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত এমপি

এ সময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত এমপি বলেন, আগামী জাতীয় নির্বাচনে শেখ হাসিনার নৌকাকে জয়যুক্ত করলে দেশে দরিদ্রতা কমে আসবে। বর্তমান সরকারকে আগামী নির্বাচনে আবারো ক্ষমতায় নিয়ে আসলে দেশে দারিদ্রতার হার ১০% নেমে আসবে। এখনও দেশে প্রায় ৩ কোটি মানুষ গরিব আছে। এর মধ্যে ১ কোটি মানুষ অতি দরিদ্র। এদেরকে উন্ননতির দিকে নিয়ে আসতে হবে। আমরা চাই ২০৪০ সালে দেশে কোন গরিব থাকবে না তবে কিছু গরীব থাকবেই যারা প্রতিবন্ধি, বিধবা ও বয়স্ক। তারা সব সময়ই রাষ্ট্রের উপর নির্ভরশীল থাকে। ১৬ কোটি মানুষ থেকে যখন দেড় কোটি মানুষকে দারিদ্রের হার থেকে বের করে নিয়ে আসব, তখনই আমাদের দেশে পূর্ণাঙ্গ সাফল্য আসবে। সেজন্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একটি লক্ষ্য নির্ধারণ করেছেন আর সেটা হলো ২০৩০ সাল। আমরা যখন ২০৩০ সালে পৌছবো তখন দেড় কোটি মানুষ ছাড়া কেউই আর গরীব থাকবে না। সব শেষ ভিশণ হচ্ছে ২০৪০ সাল। তখন আমরা একটি উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত হবো এবং আমরা বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে পারবো। আগামী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্ধিতা হবে তবে আমাদেরকেই জনগন আবার ক্ষমতায় নিয়ে আসবে বলে আমার বিশ্বাস । আমি আজ আপনাদের জন্যই রাষ্ট্রের গুরুত্বপূূূূর্ণ দায়িত্ব পালন করেছি। আমি আর নির্বাচন করছিনা তবে দলের প্রার্থীর জন্য কাজ করব। তাই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আবারো শেখ হাসিনার নৌকা পথিকে ভোট দিয়ে শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করুন।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জাতিসংঘে বাংলাদেশের সাবেক স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত ড. এ.কে আব্দুল মোমেন, সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক এমপি আলহাজ্ব শফিকুর রহমান চৌধুরী, সহ সভাপতি ও সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আশফাক আহমদ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক সৈয়দ ইপতার হোসেন পিয়ার, সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মফিজুর রহমান বাদশা, সাধারণ সম্পাদক ও কান্দিগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ নিজাম উদ্দিন, আওয়ামীলীগ নেতা খাদিম নগর ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আপ্তাব উদ্দিন, আইন বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল আজিজ, তথ্য ও গবেষনা সম্পাদক এইচ.এম.এ মালিক ঈমন, সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক মুহিবুর রহমান বিলাল, মোগলগাঁও ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শামসুল ইসলাম টুনু মিয়া, খাদিম পাড়া ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম বিলাল, মহানগর যুবলীগের আহবায়ক আলম খান মুক্তি।

উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন- উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা হাজী মুজিবুর রহমান, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ নেতা আয়াত উল্লাহ বুধু, জালাল আহমদ, আব্দুল হান্নান, মনির উদ্দীন কারিগর, ডাঃ জালাল উদ্দিন, জুনেদ আহমদ সরকার, শফিকুর রহমান দুদু, হাজী নাছির উদ্দিন, সদর উপজেলা যুবলীগ নেতা হাজী আরিফ আহমদ সুমন, শফিক মিয়া, ইকলাল আহমদ, মো. আনছার আলী মেম্বার, জয়নাল আবদীন, মোবারক হোসেন, , আবুল কালাম আজাদ, দিলয়ার হোসেন, আব্দুস সামাদ, আবুল হাসনাত, পারভেজ আহমদ, মিজানুর রহমান, এমরান আলী তালুকদার, আব্দুস ছালাম, সদর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহবায়ক মোঃ শাহজাহান, লুৎফুর রহমান, হাজী হেলাল আহমদ, ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ নেতা আসাব উদ্দিন, মখন মিয়া, মক্ররম আলী, মুসলিম মিয়া, এস এম তারা মিয়া, ইন্তাজ আলী, মানিক মিয়া, আব্দুল গনি, তাজির আলী, লাল মিয়া, মুক্তার হোসেন, হানিফ আলী, দুদু মিয়া, ফরিদ উদ্দিন, মাসুক মিয়া, দুলন কর্মকার, নান্টু সরকার, মনির উদ্দিন, কামাল মিয়া, জিতু মিয়া, সাদ্দাম হোসেন, আনোয়ার হোসেন, কুতুব উদ্দিন, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক উপ-সম্পাদক শাহাদত হোসেন, সদর উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা গোলাম আজম জয়, আব্দুল বাছিত, হিরণ শাহ, আক্তার হোসেন, মইনূল ইসলাম ফাহিম, বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলার খাদিমনগর শাখার সভাপতি মোক্তার খাঁ, সহ সভাপতি আরব আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রহিম, আঃ শুকুর।

এয়ারপোর্ট ইউনিট ছাত্রলীগ নেতা রাকিব হাসান, নীলয় হাসান অপু মুরাদ, মুন্না, পাপ্পু আহমেদ, সামাদ আহমেদ, ফরিয়াদ, রহমান, আলমাছ আলী, রোহেল, জাবেদ আহমদ, শফিকু ইসলাম জয়, মেহেরাব হোসেন অপু, মতিউর রহমান সুমিন, ফয়সল আহমেদ, সবুজ, সাগর, এমরুল, কাওছার, মিটুন, সাকিব, এ.এইচ.বিজয়, মহিবুর রহমান, আল আমিন খান, আকিব, সাকিল, তারেক প্রমুখ।

ফেসবুক মন্তব্য
xxx