প্রচণ্ড ইচ্ছাশক্তি ও সাধনার মাধ্যমে জীবনে সফলতা অর্জন সম্ভব : ড. মোমেন

সিলনিউজ২৪.কমঃ জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের সাবেক স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, প্রচণ্ড ইচ্ছাশক্তি এবং সাধনার মাধ্যমে নিজেদেরকে জীবনে সফলতা অর্জন করা সম্ভব।  জ্ঞান অর্জনের মাধ্যমে তোমাদের স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করতে পারবে। মানুষের সেবার মানসিকতা, তোমাদেরকে মহান করে তুলবে। এর মাধ্যমে জাতিও উপকৃত হবে। দি অপটিমিস্টস তোমাদেরকে সাফল্যের ব্যাপারে আশাবাদী করছে। তোমাদেরকে সেই সুযোগ কাজে লাগাতে হবে।

আমেরিকায় বসবাসরত প্রবাসী বাঙ্গালীদের সংগঠন দি অপটিমিস্টস, সিলেট-এর উদ্যোগে সুবিধাবঞ্চিত, গরীব ও অসহায় শিক্ষার্থীদের মধ্যে বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

দি অপটিমিস্টস সিলেট-এর ডিরেক্টর প্রফেসর আব্দুল মতিনের সভাপতিত্বে গতকাল শনিবার দুপুরে নগরীর ধোপাদিঘীরপাড়স্থ একটি কমিউনিটি সেন্টারে আয়োজিত বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন দি অপটিমিস্টস-এর সাবেক চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা তোফাজ্জল করিম, সিলেট সিটি কর্পোরেশনের ২০ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আজাদুর রহমান আজাদ, দি অপটিমিস্ট যুক্তরাষ্ট্রের স্পন্সর সেলিনা মোমেন, দি অপটিমিস্টস যুক্তরাষ্ট্রের স্পন্সর খায়ের আহমদ চৌধুরী ফকু, দি অপটিমিস্টস, ঢাকা-এর জেনারেল সেক্রেটারী এ কে এম সাইদুল করিম।

দি অপটিমিস্টস সিলেট-এর প্রেস ও কমিউনিকেশন ডাইরেক্টর সাংবাদিক আব্দুল বাতিন ফয়সলের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন শাবিপ্রবির সাবেক রেজিস্ট্রার জামিল আহমদ চৌধুরী, ইন্সক্লুসিভ স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ মো. রফিকুল হক।

অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য  রাখেন দি অপটিমিস্টস সিলেট-এর ডিরেক্টর প্রফেসর আব্দুল মতিন। পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন শিল্পী বেগম। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন উপজেলার ১৬২ জন শিক্ষার্থীদের মধ্যে প্রায় ৮ লক্ষ টাকার বৃত্তি প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানে বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সিলেট কৃষি  বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ও দি অপটিমিস্ট, সিলেট এর ফাইন্যান্স ডিরেক্টর ড. সুলতান মাহমুদ টিপু। এছাড়া দি অপটিমিস্টস, ঢাকা-এর উদ্যোগে রানা প্লাজায় আহত ও নিহত পরিবারের ১০০ জন শিক্ষার্থীদের মধ্যে বৃত্তি প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি এবং অন্যান্য অতিথিবৃন্দ শিক্ষার্থীদের হাতে বৃত্তি তুলে দেন।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ডা. নাজরা চৌধুরী, যুবলীগ নেতা আলম খান মুক্তি, ইন্সক্লুসিভ স্কুল এন্ড কলেজের ভাইস প্রিন্সিপাল ফারজানা ইসরাত, প্রবাসী কমিউনিটি নেতা গোলাম জাকির চৌধুরী, মনজুর চৌধুরী, সমাজসেবী হেলেন আহমদ, রাহাত তফাদার, আবুল হোসেন। সভাপতির বক্তব্যে দি অপটিমিস্টস সিলেট-এর ডিরেক্টর প্রফেসর আব্দুল মতিন বলেন, ২০০১ সাল থেকে দি অপটিমিস্টস সুবিধা বঞ্চিত মেধাবী শিক্ষার্থীদেরকে শিক্ষাদানের সুযোগে সহায়তা করাসহ তাদেরকে পরিপূর্ণ মানুষ হওয়ার প্রেরণা দিয়ে আসছে। সারা বাংলাদেশের ২৬টি জেলায় বৃত্তি প্রদান কার্যক্রম চালু আছে। ভবিষ্যতেও এর ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে বলে আমি প্রত্যাশা করি। আজকের এই অনুষ্ঠানের পেছনে যাদের ত্যাগ ও শ্রম জড়িত আছে তাদের সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

ফেসবুক মন্তব্য
xxx