নিউজটি পড়া হয়েছে 57

এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়ে সন্ধ্যায় মাঠে নামছে বাংলাদেশ-ভারত।

সিলনিউজ অনলাইনঃ সাকিব-তামিম ছাড়া ম্যাচ জেতার সামর্থ্য আছে, পাকিস্তানের বিপক্ষে সেটা প্রমাণ হয়েছে। ফাইনালে এই আত্মবিশ্বাস কাজে লাগবে-বলছেন মাশরাফী মোর্ত্তজা। পুরো দলকে নামতে বলেছেন নির্ভার হয়ে।কোনও চাপ না নিয়ে উপভোগের মন্ত্রে দলকে উজ্জ্বীবিত করছেন অধিনায়ক। ভারতও সতর্ক টাইগারদের নিয়ে।

দুবাইয়ে মেগা ফাইনাল আজ (শুক্রবার) সাড়ে ৫টায়। এশিয়ার সেরা হওয়ার দৌড়ে মাঠে নামবে বাংলাদেশ ও ভারত। 

টুর্নামেন্টে শ্রীলঙ্কা, ভারত, আফগানদের হারিয়ে ফাইনালে বাংলাদেশ। হংকংয়ের বিপক্ষে খেলতে হয়নি, ভারতের সঙ্গে সুপার ফোরের প্রথম ম্যাচ হারতে হয়েছে। এবারে ফাইনালে আবারও মুখোমুখি দুই দল। সাকিব-তামিম না থাকলেও টুর্নামেন্টের ফেবারিট দলকে নিয়ে দুশ্চিন্তা নেই মাশরাফীদের। পাকিস্তান ম্যাচ জয়ের আত্মবিশ্বাস স্বপ্নের পালে হাওয়া দিচ্ছে।

নিদাহাস ট্রফিতে ভারতের বিপক্ষে শেষ মুহুর্তের হারের ক্ষত এখনও টাটকা। এবারে ফরম্যাট ভিন্নত, তাই সম্ভাবনাটাও বেশি। কিন্তু নিদাহাস ট্রফির ওই ম্যাচের স্মৃতি তো ঘুরে ফিরে আসবেই। প্রতিশোধের চিন্তাভাবনাও ঘুরপাক খাবে মনে এটাই স্বাভাবিক। তবে ক্যাপ্টেন মাশরাফী সতর্ক, সতীর্থদের বলছেন আবেগের লাগামটা টেনে ধরতে।

টপ অর্ডার নিয়ে দুশ্চিন্তা কাটছে না, তবে মিডল অর্ডার আর বোলিং ডিপার্টমেন্ট ওই দূর্বলতা পুষিয়ে দিচ্ছে। ফাইনালে টপ অর্ডারকে দায়িত্ব নিতে বলছেন টাইগার ক্যাপ্টেন।
কন্ডিশন বিবেচনায় এই টুর্নামেন্টে টাইগাররা ফেবারিটের ছিলো না। সঙ্গে ইনজুরির হানা তো ছিলোই। তবুও ফাইনালে জায়গা করে নিয়েছে মাশরাফীররা। শিখর ধাওয়ান তাই বাংলাদেশকে নিয়ে সতর্ক।

ভারতীয় ওপেনার শিখর ধাওয়ান বলেন, বাংলাদেশ দারুন এক দল, এখন ফাইনালে খেলছে। পারফর্মেন্সে প্রমাণ করেছে ওদের হারানো কঠিন। সময়ের সাথে বেশকিছু খেলোয়াড় আরও পরিণত হয়েছে। অভিজ্ঞতায় এগিয়ে আছে বেশকজন, তারা চাপের সময় দারুন ক্রিকেট খেলছে। বড় দলের সঙ্গে কি করতে হয় সেটা এখন বুঝতে পারে–চাপ নেয়ার অভ্যাস ওদের আরও শক্ত করেছে।

ভারতের ওপেনিং জুটি ভীতি জাগানিয়া, শিরোপা জিততে রোহিত-শিখরকে দ্রুত সাজঘরে ফেরানোর পরিকল্পনা আঁটছে বাংলাদেশ।

ফেসবুক মন্তব্য
xxx