নবীগঞ্জের আমোকুনা সমিতির নির্বাচনে দিলাল মিয়ার বিরুদ্ধে আচরণ বিধি লংঘনের অভিযোগ।

নবীগঞ্জ প্রতিনিধিঃ নবীগঞ্জ উপজেলায় শেভরন ব্রাক ও আইডিয়া পরিচালিত আমোকুনা সার্বিক গ্রাম উন্নয়ন সমিতি লিমিটেড এর প্রথম নির্বাচন ২০১৮-২০২০ ত্রী-বার্ষিক নির্বাচন আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর গোপন ব্যালটে ভোটের মাধ্যমে অনুষ্টিত হবে। এই নির্বাচনকে ঘীরে সরকারী নিবন্ধনকৃত উক্ত সমিতির সাধারণ ভোটার সদস্যেদের মধ্যে উৎসব মুখর পরিবেশ সৃস্টি হয়েছিল। অন্যদিকে আচরণ বিধি লংঘনের ঘটনায় ব্যাপক উত্তেজনা ও বিরাজ করছে।

এর কারণ হিসেবে আজ (বুধবার) বিকেলে সরেজমিনে পরিদর্শকালে অভিযোগকারীদের সাথে আলাপকালে জানা যায়, উক্ত সমিতির নির্বাচনে সহ-সভাপতি পদে ২জন প্রার্থী ভোটযুদ্ধে অংশ নিয়েছেন। মোঃ মুক্তার হোসেন তালুকদার বই মার্কা এবং মোঃ দিলাল মিয়া ফুটবল মার্কা নিয়ে। এই দুই প্রতিদ্বন্ধী প্রার্থীদের মধ্যে মোঃ দিলাল মিয়া ফুটবল মার্কার পোষ্টার নির্বাচন আচরণবিধি লংঘন করে উক্ত সমিতির আধা-পাকা টিনসেড অফিস ঘরের দেয়ালসহ (ভেরা) সামনে ও গুরুত্বপূর্ণ নিষিদ্ধ স্থানে নিজ হাতে প্রভাব বিস্তার করে লাগানোর গুরুতর অভিযোগ তোলেছেন অপর প্রার্থি মোঃ মুক্তার হোসেন তালুকদার সহ অন্যান্য সদস্যবৃন্দ।

এ ব্যাপারে মোঃ মুক্তার হোসেন তালুকদার বাদী হয়ে বুধবার নির্বাচন কমিশন মোঃ আহমদ চৌধুরীর বরাবরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করে বলেন, নির্বাচনী আচরণ বিধি লঙনের দায়ে অভিযুক্ত মোঃ দিলাল মিয়ার মনোনয়ন পত্র বাতিলের দাবী জানান তিনি।

এব্যাপারে নির্বাচন কমিশন আহমদ চৌধুরীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমি আজ অভিযোগ পেয়েছি। তদন্তনুযায়ী অবশ্যই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। অপরদিকে এই ঘটনায় গ্রামের সাধারণ সদস্য ও ভোটারদের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ ও উত্তেজনা বিরাজ করছে। যে কোন সময় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশংকা করছেন স্থানীয়রা।

ফেসবুক মন্তব্য
xxx