সুষ্ঠু নির্বাচন না হলে আওয়ামী লীও নিরাপদ নয় : মঈন খান

সিলনিউজ অনলাইন ডেস্কঃ নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন এবং জনগণের ভোটে সরকার প্রতিষ্ঠিত না হলে এ দেশে আওয়ামী লীগও নিরাপদ নয় বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান।

রোববার জাতীয় প্রেসক্লাবে ‘সংঘাতের রাজনীতি: গণতন্ত্র ও সুশাসনের জন্য হুমকি’ শীর্ষক আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন তিনি। বাংলাদেশ গণতান্ত্রিক সাংস্কৃতিক জোট এ আলোচনা সভার আয়োজন করে।

মঈন খান বলেন, আজকের এই সংঘাতময় রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটের জন্য দায়ী আওয়ামী লীগ। এদেশের বিচার, প্রশাসন, রাজনীতি সব কিছুকে কলুষিত করেছে তারা। বাংলাদেশে সংঘাতের রাজনীতির জন্ম দেয় আওয়ামী লীগই।

তিনি বলেন, দেশের রাজনীতিকে কলুষিত করে তুলে দলটি। জামায়াতের সাথে জোট করে আন্দোলন করে আওয়ামী লীগ ১৭৩ দিন হরতাল করেছিলো। সংঘাতের রাজনীতি কাকে বলে? তা মানুষ হাড়ে হাড়ে টের পেলো তখন। আর বিএনপি সংঘাতের রাজনীতি থেকে দূরে আছে। বিএনপি গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে। মানুষের ক্ষমতায়নে বিশ্বাস করে।

বিএনপির এ কেন্দ্রীয় নেতা আরো বলেন, আওয়ামী লীগ যদি জোর করে আবারও ক্ষমতা দখল করে তাহলে দেশে যে পরিমাণ লুটপাট হবে তা অবিশ্বাস্য। তখন ট্রেন, বিমান, বাস কিছু চলবে না, মানুষকে নৌকায় চড়তে হবে। আবারও পেছনে ফিরে যেতে হবে মানুষকে। আর সুষ্ঠু নির্বাচন না হলে সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হবে আওয়ামী লীগেরই।

মঈন খান বলেন, আওয়ামী লীগের বাঁচার একটি মাত্র পথ খোলা আছে। আর সেটি হলো যে, নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে একটি সুষ্ঠু নির্বাচন দিয়ে জনগণের ভোটাধিকার নিশ্চিত করার সুযোগ দেয়া। শান্তিপূর্ণ উপায়ে নির্বাচনের মাধ্যমে ক্ষমতা হস্তান্তর না করা পর্যন্ত এদেশে আওঅমী লীগও নিরাপদ নয়।

ফেসবুক মন্তব্য
xxx