বিতর্কিত কাউকে মনোনয়ন দেবে না আওয়ামী লীগ

সিলনিউজ অনলাইন ডেস্কঃ আগামী জাতীয় নির্বাচনে কোন সমালোচিত বা বিতর্কিত ব্যক্তিকে মনোনয়ন দিবে না আওয়ামী লীগ। আর বিতর্কিত প্রার্থীদের ইতোমধ্যে চিহ্নিতও করেছে দলটি। জনগণের সাথে তৃণমূলে যাদের সম্পর্ক আছে বা নির্বাচনে জিততে সক্ষম এমন প্রার্থীকেই দল মনোনয়ন দিবে।

একাদশ জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মনোনয়ন নিয়ে সময় সংবাদকে এসব কথা বলেছেন দলের একাধিক নীতি-নির্ধারক।

সংবিধান অনুযায়ী আগামী ডিসেম্বরের মধ্যেই হতে হবে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। এ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হতে নিজ নিজ এলাকায় জনসংযোগ করছেন মনোনয়ন প্রত্যাশীরা।আর দলের সাধারণ সম্পাদক ও একাধিক সূত্র জানিয়েছেন আগামী অক্টোবরেই প্রার্থীদের মনোনয়ন চূড়ান্ত করবে আওয়ামী লীগ। সেজন্য এখন থেকেই প্রার্থীরা দৌড়ঝাঁপে ব্যস্ত সময় পার করছেন।

নিজেদের প্রত্যাশা সত্ত্বেও প্রার্থী হতে আগ্রহীরা জানালেন দল থেকে যাকেই মনোনয়ন দেয়া হবে তার জন্যই কাজ করবেন তারা।

ঢাকা-১৮ আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী হাবিব হাসান বলেন, ‘যদি কোন কারণে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা আমার থেকে যোগ্য প্রার্থীকে মনোনীত করেন, যাকেই নৌকা প্রতীক দিবেন তার পক্ষে কাজ করেই নৌকা প্রতীককে বিজয়ী করবো।’

ঢাকা-১৮ আসনের মনোনয়ন প্রত্যাশী মো. ওয়াকিল উদ্দিন বলেন, ‘মনোনয়ন প্রত্যাশী অনেক জায়গায় অনেক লোকই থাকতে পারে। জননেত্রী শেখ হাসিনা যাকেই নমিনেশন দেবেন, তারপরে কোন ধরণের কোন গ্রুপিং থাকবে বলে আমি মনে করি না। সবাই একসাথে কাজ করবো।’

আর দলের নীতি নির্ধারকরা বলছেন, আগামী নির্বাচনের জন্য প্রার্থী বাছাই কার্যক্রম চলছে। অক্টোবরে দলের পক্ষ থেকে তাদের নাম ঘোষণা করার কথাও চূড়ান্ত। তবে তৃণমূলের সাথে সম্পর্ক নেই এমন প্রার্থী অথবা যাদের ব্যক্তি স্বার্থের জন্য দলের ভাবমূর্তি নষ্ট হয়েছে এমন কাউকে দল মনোনয়ন দেবে না।

আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ব্যারিস্টার মুহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেন, ‘সততা, নিষ্ঠা এবং দলের প্রতি, আদর্শের প্রতি একজন প্রার্থীর কমিটমেন্ট থাকতে হবে। নিজের পকেট ভারী করবার জন্য অবৈধ কাজ করলে সেই ধরণের বিতর্ক তো অবশ্যই আমলে নেয়া হয় মনোনয়ন দেয়ার ক্ষেত্রে।’

আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য কাজী জাফরউল্লাহ বলেন, ‘পাবলিকের যাদের ওপরে আস্থা নাই তাদের হয়তো এবার আমরা মনোনয়ন দিবো না। আওয়ামী লীগের ভেতরে যেসব বিতর্কিত নেতৃবৃন্দ আছে আমরা তাদের অনেকটা চিহ্নিত করেছি। আগামী নির্বাচনে এদের ভেতরে অনেকে বাদ পড়ে যাবেন।’

দলের নীতি নির্ধারকরা আরো জানান, আগামী নির্বাচনে বাদ পড়ার তালিকায় রয়েছেন দলের অনেক এমপি-মন্ত্রীও।

সূত্রঃ সময় টিভি

ফেসবুক মন্তব্য
xxx