বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপের ড্র সম্পন্ন, বি গ্রুপে বাংলাদেশ।

সিলনিউজ অনলাইনঃ আনুষ্ঠানিকভাবে হয়ে গেল বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপের ড্র। দুই গ্রুপে ভাগ হয়ে অংশ নেবে অংশগ্রহণকারী ৬টি দল। রাজধানীর একটি হোটেলে জাঁকজমকপূর্ণ আয়োজনে এই ড্র অনুষ্ঠিত হয়। ড্র অনুষ্ঠানের মতোই টুর্নামেন্টকেও জমিয়ে তুলতে চায় বাফুফে। সেক্ষেত্রে বাংলাদেশ দলের পারফরম্যান্সের পাশাপাশি দর্শকদেরও সমর্থন চাইলেন বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন। এদিকে, আগের আসরগুলোয় আর্থিক জটিলতা নিয়ে প্রশ্ন উঠলেও এবার সতর্ক থাকবে আয়োজকরা, জানিয়েছেন টুর্নামেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান আবদুস সালাম মুর্শেদী।

অংশগ্রহণকারী দেশ ছয়টি। বাংলাদেশসহ এশিয়ার ৫টি অঞ্চলের একটি করে দেশকে নিয়ে ১লা অক্টোবর শুরু হচ্ছে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ টুর্নামেন্ট। আনুষ্ঠানিকভাবে হলো ড্র অনুষ্ঠান। যেখানে দুই গ্রুপে ভাগ হয়ে খেলবে অংশগ্রহণকারী দলগুলো। এ গ্রুপে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন নেপালের সঙ্গে আছে ফিলিস্তিন ও তাজিকিস্তান। আর বি গ্রুপে স্বাগতিক বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ ফিলিপাইন ও লাওস। ড্র শেষে ছিল মনোমুগ্ধকর পরিবেশনা। অংশগ্রহণকারী ৬টি দেশের নিজস্ব সংস্কৃতি তুলে ধরেন শিল্পীরা। বাফুফে চায় পুরো টুর্নামেন্টটাকেই জমিয়ে তুলতে। সেজন্যে দর্শকদেরও বিপুল সমর্থন চাইলেন বাফুফে সভাপতি।

গেল শতকে শুরু হওয়া এই আসর কখনোই ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে পারেনি। ২০১৫ ও ১৬ সালে টানা আয়োজনের পর বিরতি ছিল গেলবছরও। আয়োজকরা আবারো অঙ্গীকার ব্যক্ত করলেন ধারাবাহিকভাবে টুর্নামেন্ট আয়োজনের। এদিকে, আগের আসরগুলোয় আর্থিক জটিলতার অভিযোগ ওঠে। অংশগ্রহণকারী দলগুলোর পাওনা টাকা পরিশোধে গাফিলতির অভিযোগ ওঠে বাফুফের বিরুদ্ধে। এবার সেসব বিষয়ে সতর্ক থাকবে আয়োজকরা।

এবারের আসরের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান হবে সিলেটে। বরাবরের মতোই বেশিরভাগ ম্যাচই অনুষ্ঠিত হবে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে।

সুত্রঃ সময় টিভি

ফেসবুক মন্তব্য
xxx