আওয়ামী লীগকে এবার বিদায় নিতেই হবে : রিজভী

আওয়ামী লীগ আজীবন ক্ষমতায় থাকার জন্য সংবিধানের ত্রয়োদশ সংশোধনী আইন বাতিলের মাধ্যমে তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা বাতিল করেছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

তিনি বলেন, তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা আপনারা (সরকার) যেভাবে বাদ দিয়েছেন ঠিক সেভাবেই আবার তা সংবিধানে সংযোজন করা সম্ভব। তবে যতই ষড়যন্ত্র ও অপচেষ্টা এবং অপলাপ করুন না কেন আওয়ামী লীগকে এবার বিদায় নিতেই হবে।

রবিবার (২ সেপ্টেম্বর) সকালে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির ৪০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সারাদেশ থেকে শতাধিক নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করার অভিযোগ করেন রিজভী।

তিনি বলেন, প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে দেশব্যাপী আইনশৃঙ্খলা বাহিনী নেতাকর্মীদের গ্রেফতার, বাড়িতে-বাড়িতে হানা ও কর্মসূচি স্থলে আসার পথে ব্যাপকভাবে বাধা দিয়েছে। দলের শতাধিক নেতাকর্মীকেও গ্রেফতার করেছে।

রিজভী বলেন, শনিবার রাজশাহীতে চারঘাট থানার মারিয়ার ঈদগাহ ময়দানের সমাবেশ শেষে পুলিশ আকস্মিক হামলা চালিয়ে রাজশাহী বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু সাঈদ চান ও থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ইউনুছ আলী তালুকদারসহ ১৬ জনকে গ্রেফতার করেছে। পিরোজপুরে জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক সাইদুল ইসলাম কিসমত, স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক হাসানুল কবির লিন, জেলা মৎস্যজীবী দলের সভাপতি তরিকুল ইসলাম নজিবুলকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এছাড়া কুষ্টিয়া জেলা যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক বিপ্লব, কমিশনার মহিউদ্দিন মিলনসহ ৫৮ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। 

এছাড়া শনিবার বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে অনুষ্ঠিত সমাবেশে আসার পথে বনানী থানার ৮ জন, নারায়ণগঞ্জ থানার ৫ জনসহ বিভিন্ন জায়গা থেকে নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন বিএনপির এই সিনিয়র নেতা।

সংবাদ সম্মেলনে ‘খালেদা জিয়ার মুক্তির বিষয়টি আওয়ামী লীগ নয়, নির্ভর করছে আদালতের ওপর’ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এমন বক্তব্যেরও সমালোচনা করেন রিজভী।

তিনি বলেন, তার (খালেদা জিয়া) জামিন বার বার বাধাগ্রস্ত করছে সরকার। তিনি একের পর এক মামলায় উচ্চ আদালত থেকে জামিন পেলেও আবার তা নানা কায়দায় আটকে দিচ্ছে সরকার। সরকারের নির্দেশেই বেগম জিয়া কারাগারে আটকে আছেন। তিনি সুবিচারে নয় প্রতিহিংসামূলক সরকারি বিচারে কারাবন্দি।

ফেসবুক মন্তব্য
xxx