নিউজটি পড়া হয়েছে 17

‘ওভারটেকিং করলেই চালকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা’

সিলনিউজ অনলাইন ডেস্কঃ  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, শহীদ রমিজ উদ্দিন স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় দায়ীদের বিচার নিশ্চিত করা হবে। সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সামনে নিরাপদ সড়ক নিশ্চিত করার ব্যবস্থা নেয়ার কথাও জানান প্রধানমন্ত্রী।

রোববার (১২ আগস্ট) সকালে রাজধানীর বিমান বন্দর সড়কে পথচারী আন্ডার পাস’ প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন তিনি।  এ সময় তিনি বলেন, ‘কোনো কোনো মহল শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে ঢুকে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে চেয়েছিল।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘রাস্তায় দাঁড়িয়ে শার্ট পরিবর্তন করছে এবং স্কুল পোশাক পরিধান করে ছাত্র হয়ে যাচ্ছে। এরা কারা..। এদের ব্যাগের ভেতর পাথর, চাপাতি, নানা ধরণের জিনিসপত্র ওই ছদ্মবেশীদের ব্যাগ থেকে বের হচ্ছে। এরা তো আর স্কুলছাত্র হতে পারে না? এই ছাত্র নামধারী যারা ঢুকলো, অনুপ্রবেশকারী তাদের উদ্দেশ্যটা তো খুব খারাপ ছিল। তারা এমন একটা কিছু করতে চাচ্ছিলো, কোনো কোনো মহল ফেইসবুক ও সোশ্যাল মিডিয়াতে গুজব ছড়াতে শুরু করলো। কাজেই আমি একটি কথা বলবো গুজবে কেউ কান দিবেন না।’

তিনি আরো বলেন, ‘যানবাহন চালকদের লাইন মেনে গাড়ি চালাতে হবে। একটি আরেকটার পেছনে থাকবে। কেউ কাউকে ওভার টেক করতে গেলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তাৎক্ষণিকভাবে এই ব্যবস্থা নিতে হবে। এটা পুলিশের একটি দায়িত্ব। আইজি সাহেব এখানে উপস্থিত আছেন, তাঁকেও আমি বলছি, আপনাকে সেভাবে নির্দেশ দিতে হবে।’

‘দেশের প্রতিটা স্কুলের সামনে নিরাপদ ক্রসিংয়ের ব্যবস্থা করা হবে। প্রতিটি স্কুল ছুটি ও শুরুর সময় সেখানে অবশ্যই একজন করে ট্রাফিক পুলিশ নিয়োজিত থাকবে।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘যতদিন আমাদের শিশুরা রাস্তায় ছিল। অনেকে আইন-কানুন মেনেছে। আমাদের মন্ত্রীদেরও গাড়ি থেকে নামতে বলেছে, তখন ফোন এসেছিল- কী করবো। বলেছি ওরা যা বলে শোনেন। কিন্তু এখন আবার দেখি পাশে ফুটওভার ব্রিজ থাকলেও রাস্তায় নেমে হাত দেখিয়ে দেখিয়ে পারাপার হয়। যততত্র গাড়ি থামিয়ে ওঠেন যাত্রীরা। এটা মোটেই ঠিক নয়। পথচারীদের আন্ডারপাস ও ফুটওভার ব্রিজ ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে।

তিনি আরো বলেন, যেখানে-সেখানে বাস থামানো যাবে না, নির্ধারিত স্টপেজে গাড়ি থামতে হবে। লেন মেনে চলতে হবে। ডিজিটাল পদ্ধতিতে ক্যামেরা ফিট করে অনিয়ম বন্ধ করতে হবে। আইন না মানলে আমাদের আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে ব্যবস্থা নিতে হবে। যেখানে যেখানে হাসপাতাল-স্কুল-কলেজ আছে, সেখানে আন্ডারপাস, ফুটওভার ব্রিজ করে দিতে হবে।

ফেসবুক মন্তব্য
xxx