সিলেট সিটি নির্বাচনে জামানত হারালেন জামায়াত সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থী জুবায়ের।

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ বেশ রাখঢাক আর শোডাউন করে সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে জানান দিলেও শেষ পর্যন্ত জামানতই রক্ষা করতে পারলেন না স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে নির্বাচনে অংশ নেওয়া জামায়াতের প্রার্থী এডভোকেট এহসানুল মাহবুব জুবায়ের। নিবন্ধন বাতিল হওয়া এ দলটির নেতাকর্মীরা জয়ের ব্যাপারে ছিলেন আশাবাদী, সেই সাথে নিজেদের শক্তিমত্তা জানান দিতেও সিলেট সিটি নির্বাচনকে টার্গেট করেছিলেন তারা। কিন্তু ফলাফল হীতে বিপরী।  জামানত হারাতে হলো যুদ্ধপরাধের দায়ে অভিযুক্ত সংগঠনটির প্রার্থীকে।

অন্যদিকে জামানত হারিয়েছেন অপর তিন প্রার্থীও। তারা হলেন হাতপাখা প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করা ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলনের ডা. মোয়াজ্জেম হোসেন খান, সিপিবি-বাসদের প্রার্থী মই প্রতীকের মোঃ আবু জাফর ও স্বতন্ত্র প্রার্থী এহসানুল হক তাহের।

মোট ৩ লক্ষ ২১ হাজার ৭৩২ জন জন ভোটারের মধ্যে নির্বাচনে ভোট দিয়েছেন ১ লক্ষ ৯১ হাজার ২৮৯ জন ভোটার। নির্বাচন কমিশনের আইন অনুযায়ী মোট কাস্টিং ভোটের ৮ ভাগের কম ভোট পেলে সেই প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত হওয়ার নিয়ম রয়েছে। জামানত বাঁচাতে হলে ২৩ হাজারের বেশি ভোট পাওয়ার দরকার ছিল জামায়াত মেয়র প্রার্থী এডভোকেট এহসানুল মাহবুব জুবায়েরের। তিনি পেয়েছেন মোট ১০৯৪৫ ভোট।

এছাড়া ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলনের ডা. মোয়াজ্জেম হোসেন খান ২১৯৫, সিপিবি-বাসদের মো. আবু জাফর ৯০০ এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী এহসানুল হক তাহের পেয়েছেন ২৯২ ভোট। 

ফেসবুক মন্তব্য
xxx