জগন্নাথপুরে এলজিইডি সড়কে পূন: সংস্কারের ৩দিন পর একই স্থানে বিশাল গর্ত ॥ চরম দুর্ভোগে পড়েছেন জনসাধারন

বিপ্লব দেব নাথ(সুনামগঞ্জ)প্রতিনিধি: স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর এলজিইডি কর্তৃক পূন: সংস্কারের পর জগন্নাথপুর-বিশ্বনাথ সড়কের উপজেলা সদর থেকে ১কিলোমিটার হাসপাতাল এলাকা পর্যন্ত সড়কে বিশাল ১টি গর্ত সৃষ্টি হওয়ায় যাতায়াতে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন জনসাধারন। কেউন বাড়ি বাজার পর্যন্ত ১৩ কিলোমিটার সড়কের পুন:সংস্কার কাজ সম্পন্ন হওয়ার পর বছর যেতে না যেতেই সড়কটিতে বিশাল ১টি গর্ত সহ অসংখ্য খানা খন্দকের সৃষ্টি হয়েছে। চলতি মাসের ৫জুন এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন অনলাইন নিউজ পোর্টাল সিলনিউজ ডট কমে প্রকাশিত হলে এলজিইডির উপজেলা প্রকৌশলীর টনক নড়ে। দ্রুত গর্ত গুলো ভরাটের ব্যবস্থা নেয় এলজিইডি কতৃপক্ষ। কোন রকম জোড়াতালি দিয়ে ইটের সুরকি ফেলে গর্ত গুলো ভরাট করলেও ৩দিন পর আবারো একই স্থানে বিশাল গর্তের সৃষ্টি হয়। প্রায় ১ সপ্তাহ ধরে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে যানবাহন চলাচল করলেও মঙ্গলবার(২৬ জুন) সড়কের ঐ স্থানে সৃষ্টি হয় গভীর গর্তের। সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত ঐ স্থানে গাড়ির চালক ও যাত্রীরা কালেমা পড়ে গর্ত পাড় হলেও বেলা ৩টায় মালবাহী ট্রাক গর্তে আটকে যাওয়ায় দু-পাশে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। বন্ধ হয়ে যায় যান চলাচল ফলে অবর্নণীয় দুর্ভোগে পড়েন জনসাধারন, পাশাপাশি যানজটের কবলে পড়েন বিদায়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার নারায়নগঞ্জ জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ মাসুম বিল্লাহ। দীর্ঘ সময় অপেক্ষার পর বিকল্প সড়ক দিয়ে ঐ কর্মকর্তার গাড়িটি গন্তব্য স্থানে যায়। প্রায় দেড় ঘন্টা পর গর্তে ধেবে যাওয়া গাড়ি গুলোর এক সাইট দিয়ে ঝুকিপূর্ন অবস্থায় যানবাহন চলাচল শুরু হয়। এছাড়াও সিএনজি অটোরিক্্রা, টমটম, রিক্্রা, মোটর সাইকেল সহ ছোট বড় সকল প্রকার যানবাহন গর্তে পড়ে গিয়ে প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছে। সড়কের ঐ স্থানের বিশাল গর্তে বৃষ্টির পানি জমে থাকার কারনে যাতায়াতকৃত অধিকাংশ যানবাহনগুলো অসাবধান বশত: গর্তে পড়ে গিয়ে যানবাহনের ক্ষতির পাশাপাশি যাত্রীদেরও জানমালের ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছে। জগন্নাথপুর-বিশ্বনাথ-সিলেট সড়কের জগন্নাথপুর পৌর শহরের উপজেলা সদর থেকে হাসপাতাল পর্যন্ত সড়কটিতে বিশাল গর্ত ও অন্যান্য স্থানে খানা খন্দক সৃষ্টি হওয়ার বিষয়ে এলজিইডির জগন্নাথপুর উপজেলা প্রকৌশলী গোলাম সারোয়ার জানান, জগন্নাথপুর-বিশ্বনাথ সিলেট সড়কের হাসপাতাল এলাকায় গর্ত হওয়ার খবর পেয়েছি। চলতি মাসের ২য় সপ্তাহে গর্তগুলো সংস্কার করা হয়। তিনি আরো জানান গর্ত হওয়া ঐ স্থানে সড়কের পাশে একটি কমিউনিটি সেন্টার থাকায় ঐ সেন্টার থেকে ব্যবহৃত পানি সড়ক দিয়ে গড়ানোর ফলে সড়কের উপর পানি আটকে থাকায় গর্তের সৃষ্টি হয়ে থাকে। সড়কে গর্ত হওয়া অংশে দ্রুত সংস্কার কাজ সম্পন্ন করা হবে।

ফেসবুক মন্তব্য
xxx