দেশের আট জেলায় সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ গেল ৩৩ জনের।

সিলনিউজ অনলাইন ঃঃ দেশের আট জেলায় সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ গেল ৩৩ জনের। এর মধ্যে গাইবান্ধায় বাস উল্টে নারী ও শিশুসহ ১৭ জন নিহত হয়েছেন। এছাড়া রংপুরে ট্রাকের ধাক্কায় ৬ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন ৪ জন। তাদের রায়গঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। শুক্রবার (২২ জুন) মধ্যরাত থেকে শনিবার (২৩ জুন) সকাল পর্যন্ত এসব দুর্ঘটনা ঘটে।

গাইবান্ধা: গাইবান্ধায় বাস উল্টে নারী ও শিশুসহ ১৭ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন অন্তত ৩৫ জন। এদের অনেকের অবস্থা আশঙ্কাজনক। শনিবার ভোরে পলাশবাড়ির ব্র্যাক অফিস এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা বাসটি রংপুর যাচ্ছিল। পথে চালক নিয়ন্ত্রণ হারালে বাসটি উল্টে যায়। এতে নিহত হন অন্তত ১৭ জন।

এর মধ্যে ঘটনাস্থলে মারা যান ৮জন এবং হাসপাতালে মারা যান ৯ জন। আহত হয়েছেন আরো ৩৫ জন। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ পৌঁছে আহতদের উদ্ধার করে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করে। এখনো চলছে উদ্ধার কাজ।

রংপুর: ভোরে ঈদের স্পেশাল সার্ভিসের বিআরটিসির ডাবলডেকারের একটি বাস দিনাজপুর থেকে ঢাকা যাচ্ছিল। পথে রংপুরের তারাগঞ্জের সলেয়াশাহ এলাকায় পৌঁছালে বাসটির চাকা ফেটে যায়। এসময় প্রচন্ড গরমের কারণে যাত্রীরা বের হয়ে বাসের পেছনে গিয়ে দাঁড়ায়। কিন্তু হঠাৎ পেছন থেকে আসা একটি বালুবাহী ট্রাক তাদের চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই ৬ জনের মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে ফায়র সার্ভিস কর্মীরা পৌঁছে আহত ৫ জনকে উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। স্বজনদের অভিযোগ, বাসটিতে পাকিং লাইট না থাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

সিরাজগঞ্জ: ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা আরকে পরিবহনের একটি বাস বগুড়া যাচ্ছিল। পথে সিরাজগঞ্জের ভূঁইয়াগাতি এলাকায় পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ট্রাকের সঙ্গে সংর্ঘষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই ট্রাকের চালক ও হেলপার নিহত হন। আহত হন বাসের অন্তত ২৫ জন যাত্রী। তাদের উদ্ধার করে রায়গঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

নাটোর: সকাল সোয়া ৬টার দিকে নাটোরের শহরের আলাইপুরস্থ কমলা সুপার মার্কেটের সামনে ট্রাকের চাপায় সিএনজিচালিত অটোরিকশার দুই যাত্রী নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন অটোরিকশা চালকসহ আরও তিনজন। নাটোর ফায়ার স্টেশন কর্মকর্তা মো. মহিউদ্দিন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

গোপালগঞ্জ: সড়ক দুর্ঘটনা দুইজন নিহত ও অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন। এর মধ্যে ১০ জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। সকাল সাড়ে ৭টার দিকে সদর উপজেলার ঘোনাপাড়ায় একটি যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে স্ট্যান্ডে দাঁড়িয়ে থাকা বেশ কয়েকটি ভ্যান, রিকশা ও থ্রি হুইলারকে ধাক্কা দিলে হতাহতের ঘটনা ঘটে।  গোপালগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনিরুল ইসলাম এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। নিহতরা হলেন- বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা(রিক)-এর গোপালগঞ্জ অফিসের মাঠ কর্মি পিরোজপুর জেলার পুলক ব্যাপারী(২৮)ও ইমরান হোসেন(৩০)।

 ফরিদপুর: জেলার ভাঙ্গায় যাত্রীবাহী তুহিন পরিবহনের একটি বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে বাসের চালক ও হেলপার নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন কমপক্ষে আরো ২০ জন। আহতদের ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও ভাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের ভাঙ্গা উপজেলার পূর্ব সদরদি বাসস্ট্যান্ড এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত বাসের চালক ও হেলপারের পরিচয় পাওয়া যায়নি। গোপালগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনিরুল ইসলাম এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। 

সাভার (ঢাকা): সকালে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের সাভারের আমিনবাজারের তুরাগ এলাকায় এ সড়ক দুর্ঘটনায় একজন নিহত হয়েছেন। সাভার মডেল থানার আমিনবাজার পুলিশ ফাঁড়ির ইনর্চাজ উপ পরিদর্শক (এসআই) জামাল এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। এছাড়াও চুয়াডাঙ্গায় সড়ক দুর্ঘটনায় একজনের মৃত্যু হয়েছে।

সূত্রঃ সময় টিভি

ফেসবুক মন্তব্য
xxx