কামরানকেই যোগ্য নগরপিতা মনে করেন আজাদ

নিজস্ব প্রতিবেদক :::  আসন্ন সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মহানগর আওয়ামী লীগের শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক ও ২০ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আজাদুর রহমান আজাদ মেয়র প্রার্থী ছিলেন। কিন্তু দলীয় সিদ্ধান্তে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের প্রথম মেয়র ও সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি বদর উদ্দিন আহমেদ কামরানকে মনোনয়ন দেওয়া হয়। দলীয় সিদ্ধান্ত মেনে নিয়ে বদর উদ্দিন আহমদ কামরানকে অভিনন্দন এবং শুভেচ্ছা জানিয়েছেন কাউন্সিলর আজাদ। আজ (শনিবার) সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে অভিনন্দন এবং শুভেচ্ছা জানিয়েছেন অাজাদ। তিনি তার স্ট্যাটাসে নিজের অবস্থান পরিষ্কার করেন এবং সমর্থন জানান। স্ট্যাটাসটি পাঠকদের স্বার্থে হুবহু তুলে দেওয়া হলো।
(আসন্ন সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে জননেত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক মনোনীত প্রার্থী আমার দীর্ঘদিনের রাজনৈতিক গুরু ও সিলেটের সর্বস্তরের জনগণের আস্থাভাজন শ্রদ্ধেয় ব্যক্তিত্ব জননেতা বদরউদ্দিন আহমদ কামরান ভাইকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা। নেত্রীর বিচক্ষণ সিদ্ধান্তের মাধ্যমে সিলেটে মেয়র প্রার্থী নিয়ে বিগত কয়েকমাস ধরে চলমান দোলাচলের আপাততঃ অবসান হল। এখন আমাদের সকলের দায়িত্ব নেত্রীর সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে দলীয় প্রার্থীর জন্য সকল সংকীর্ণতার ঊর্ধ্বে উঠে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করা। আমরা আমাদের স্ব স্ব অবস্থান থেকে নিজেদের প্রার্থীর পক্ষে কাজ করলে বিজয় আমাদের অবধারিত। বদরউদ্দিন আহমদ কামরান সিলেটের একজন সর্বজনশ্রদ্ধেয় রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব এবং বিগত দিনের সকল আন্দোলন সংগ্রামে তিনি ছিলেন আমাদের অভিভাবকতুল্য। সিলেটের সামগ্রিক উন্নয়ন কর্মকান্ডসহ সকল রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ও সামাজিক আন্দোলনে তিনি ছায়ার মতো আমাদের আগলে রেখেছেন, প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনা দিয়েছেন। তাঁর সমস্ত চিন্তা-চেতনা-সংগ্রাম ও স্বপ্ন সিলেটের আপামর জনসাধারনের সামগ্রিক কল্যাণ ও এই নগরীর অবকাঠামোগত উন্নয়ন। সিলেটের নগরপিতার সুযোগ্য ও একমাত্র দাবীদার জননেতা বদরউদ্দিন আহমদ কামরান ভাই’র তুলনা কেবল তিনিই। আমি সর্বান্তকরণে তাঁর সাফল্য কামনা করছি।
প্রসঙ্গতঃ সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র পদে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে আমিও একজন প্রার্থী ছিলাম। কিন্তু দলীয় সভানেত্রীর সিদ্ধান্তের প্রতি সশ্রদ্ধ সম্মান জানিয়ে আমি আমার প্রার্থীতা প্রত্যাহার করে নিলাম। আমার যে সকল শুভাকাঙ্খী/অনুসারী বন্ধুরা বিগত কয়েক বছর ধরে আমার জন্য দিনরাত পরিশ্রম করেছেন, পরামর্শ, সহযোগিতা ও সমর্থন দিয়েছেন তাঁদের সবার প্রতি রইল আমার বিনম্র কৃতজ্ঞতা।)
ফেসবুক মন্তব্য
xxx