সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে প্রার্থীদের নির্বাচনকালীন ব্যয়সীমা নির্ধারণ করেছে ইসি।

স্টাফ রিপোর্টার ঃঃ সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারীদের নির্বাচনকালীন সময় কত টাকা ব্যয় করতে পারবেন তার নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে। নির্বাচন কমিশনের সিলেটের সিনিয়র জেলা নির্বাচন কমিশনারের কার্যালয় থেকে নির্বাচনী ব্যয় সংক্রান্ত তথ্যাদি জানানো হয়েছে।

তথ্যানুযায়ী সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে একজন মেয়র প্রার্থী তার ব্যক্তিগত খরচ বাবদ সর্বোচ্চ ৭৫ হাজার টাকা এবং নির্বাচনী ব্যয় সর্বোচ্চ ১৫ লাখ টাকা। স্থানীয় সরকার নির্বাচন বিধিমালা-২০১০ এর বিধি ৪৯(১)(ক)(অ)(আ) অনুযায়ী মেয়র প্রার্থীর জন্য এই ব্যয়সীমা নির্ধারণ করেছে ইসি। সেই সাথে কাউন্সিলর প্রার্থীদের ব্যায়ের সীমা নির্ধারণ করা হয়েছে।

নির্বাচন কমিশনের তথ্য অনুযায়ী সিসিকের কাউন্সিলর প্রার্থীদের ব্যায়ের হিসাব। ১, ২ ও ৩নং ওয়ার্ডে প্রতি সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থী ব্যক্তিগত খরচ ১০ হাজার টাকা এবং নির্বাচনী ব্যয় এক লাখ টাকা। সংরক্ষিত ১নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থী ব্যক্তিগত ২০ হাজার টাকা এবং নির্বাচনী ব্যয়ের ক্ষেত্রে ২ লাখ টাকা। ৪নং ওয়ার্ডে প্রতি সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থী ব্যক্তিগত খরচ ১০ হাজার টাকা এবং নির্বাচনী ব্যয় বাবাদ এক লাখ টাকা। ৫নং ওয়ার্ডে প্রতি সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থীর ব্যক্তিগত খরচ ২০ হাজার টাকা এবং নির্বাচনী ব্যয়ের ক্ষেত্রে ২ লাখ। ৬নং ওয়ার্ডে প্রতি সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থীর ব্যক্তিগত খাতে ১০ হাজার টাকা এবং নির্বাচনী ব্যয় বাবাদ এক লাখ টাকা। সংরক্ষিত ২নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থীর ব্যক্তিগত ৩০ হাজার টাকা এবং নির্বাচনী ব্যয়ের ক্ষেত্রে ৪ লাখ। ৭, ৮ ও ৯নং ওয়ার্ডে প্রতি সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থী ব্যক্তিগত ব্যয়ে ২০ হাজার টাকা এবং নির্বাচনী ব্যয়ে ২ লাখ টাকা। সংরক্ষিত ৩নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থী ব্যক্তিগত ৫০ হাজার টাকা এবং নির্বাচনী ব্যয়ের ক্ষেত্রে ৬ লাখ। ১০নং ওয়ার্ডে প্রতি সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থী ব্যক্তিগত খরচ ২০ হাজার টাকা এবং নির্বাচনী ব্যয় বাবদ ২ লাখ। ১১ ও ১২নং ওয়ার্ডে প্রতি সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থী ব্যক্তিগত ব্যয়ে ১০ হাজার টাকা এবং নির্বাচনী ব্যয়ে এক লাখ টাকা। ৩নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থী ব্যক্তিগত খাতে ৩০ হাজার টাকা এবং নির্বাচনী ব্যয়ের ক্ষেত্রে ৪ লাখ টাকা। ১৩, ১৪ ও ১৫নং ওয়ার্ডে প্রতি সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থী ব্যক্তিগত ব্যয়ে ১০ হাজার টাকা এবং নির্বাচনী ব্যয়ে এক লাখ টাকা। সংরক্ষিত ৫নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থী ব্যক্তিগত ব্যয়ে ২০ হাজার টাকা এবং নির্বাচনী ব্যয়ে ২ লাখ টাকা। ১৬, ১৭ ও ১৮নং ওয়ার্ডে প্রতি সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থী ব্যক্তিগত ব্যয়ে ১০ হাজার টাকা এবং নির্বাচনী ব্যয়ে এক লাখ টাকা। সংরক্ষিত ৬নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থী ব্যক্তিগত ব্যয়ে ৩০ হাজার টাকা এবং নির্বাচনী ব্যয়ে ৪ লাখ টাকা। ১৯, ২০ ও ২১নং ওয়ার্ডে প্রতি সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থী ব্যক্তিগত ব্যয়ে ১০ হাজার টাকা এবং নির্বাচনী ব্যয়ের ক্ষেত্রে এক লাখ টাকা। সংরক্ষিত ৭নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থী ব্যক্তিগত ব্যয়ে ৩০ হাজার টাকা এবং নির্বাচনী ব্যয়ে ৪ লাখ টাকা। ২২, ২৩ ও ২৪নং ওয়ার্ডে প্রতি সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থী ব্যক্তিগত খাতে ১০ হাজার টাকা এবং নির্বাচনী ব্যয়ে সর্বোচ্চ এক লাখ টাকা। সংরক্ষিত ৮নং ওয়ার্ডে প্রতি কাউন্সিলর প্রার্থীর ব্যক্তিগত ব্যয়সীমা ২০ হাজার টাকা এবং নির্বাচনী ব্যয়সীমা ২ লাখ টাকা। ২৫, ২৬ ও ২৭নং ওয়ার্ডে প্রতি সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থীর ব্যক্তিগত ব্যয়সীমা ১০ হাজার টাকা এবং নির্বাচনী ব্যয়সীমা এক লাখ টাকা। সংরক্ষিত ৯নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থী ব্যক্তিগত ব্যয়ে ৩০ হাজার টাকা এবং নির্বাচনী ব্যয়ে ৪ লাখ টাকা খরচের ব্যাসীমা নির্ধারণ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য আগামী ৩০ জুলাই সিলেট সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ২৮ জুন পর্যন্ত মনোনয়নপত্র সংগ্রহ ও জমাদান,  ১ ও ২ জুলাই মনোনয়নপত্র বাছাই এবং প্রার্থীতা প্রত্যাহার ৯ জুলাই।

ফেসবুক মন্তব্য
xxx