নিউজটি পড়া হয়েছে 52

এপেক্স ক্লাবের জেলা-৪-এ ৪টি ক্লাবের যৌথ পালাবদল অনুষ্ঠান

সিলনিউজ২৪.কমঃ সিলেটের জেলা প্রশাসক নুমেরী জামান বলেছেন, মানুষের সেবায় যারা এগিয়ে আসেন, তারাই সমাজের শ্রেষ্ট মানুষ। মানুষকে সেবা দেওয়ার মাধ্যমেই উন্নত ও যোগ্য নাগরিক গড়ে তুলা সম্ভব। এপেক্স ক্লাব তেমনি সমাজ উন্নয়নে প্রশংসনীয় ভূমিকা রাখছে। নেতৃত্বের বিকাশের মাধ্যমে উন্নতির চরম শিখরে পৌঁছে মানবসেবায় সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে।
এপেক্স ক্লাবস অব বাংলাদেশ আয়োজিত এপেক্স ক্লাব অব সাউথ সুরমা, স্যাংটাম, হলি সিটি এবং রোজ গার্ডেন-এর যৌথ পালাবদল অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
গত মঙ্গলবার নগরীর জিন্দাবাজারস্থ একটি অভিজাত হোটেলের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেন এপেক্সিয়ান ইফতেখার মনি। অনুষ্ঠানে এপেক্স সম্পর্কে স্বাগত বক্তব্য রাখেন চেয়ারম্যান এপেক্সিয়ান ইফতেখার মনি। আগত অতিথিবৃন্দকে পরিচয় করিয়ে দেন ন্যাশনাল এক্সিকিউটিভ সেক্রেটারী এপেক্সিয়ান আহমেদ জাকারিয়া। পরে অনুষ্ঠানের চেয়ারম্যান এপেক্সিয়ান ইফতেখার মনি প্রোগ্রাম চেয়ার এপেক্সিয়ান জেলা গভর্নর-৪, এডভোকেট মো. মাসুম আহমদের কাছে হস্তান্তর করেন। জেলা গভর্নর -৪ এপেক্সিয়ান এডভোকেট মো. মাসুম আহমদের পরিচালনায় এপেক্স ক্লাব অব সাউথ সুরমা, স্যাংটাম, হলি সিটি এবং রোজ গার্ডেন তাদের বার্ষিক রিপোর্ট পেশ করেন। ক্লাবের সভাপতি এবং সেক্রেটারী বিভিন্ন ক্লাবের সদস্যদের প্রশ্নের উত্তর দেন। পরে ২০১৮ সালের জন্য নির্বাচিত ক্লাবের সভাপতিকে লেভেল দিয়ে সভাপতিকে বরণ করে পর্যায়ক্রমে সব ক্লাবের শপথ বাক্য পাঠ করান জেলা গভর্নর-৪, এপেক্সিয়ান এডভোকেট মো. মাসুম আহমদ। শপথ বাক্য পাঠ করানোর পরে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন এপেক্স ক্লাবস অব বাংলাদেশ-এর জাতীয় সভাপতি এপেক্সিয়ান সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন শেবলু, জাতীয় সহ সভাপতি এপেক্সিয়ান এম এ কাইয়ুম চৌধুরী, সদ্য অতীত জাতীয় সভাপতি এপেক্সিয়ান খোরশেদুল আলম অরুন, সম্মানিত অতিথির বক্তব্য রাখেন এপেক্সিয়ান এডভোকেট এ কে এম সামিউল আলম, এলজি, অতীত জাতীয় সভাপতি এপেক্সিয়ান রমিজ উদ্দিন, অতীত জাতীয় সভাপতি এপেক্সিয়ান চন্দন দাশ। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা গভর্নর-২ এপেক্সিয়ান মো. আলী হোসেন, সদ্য অতীত জেলা গভর্নর-৪ এপেক্সিয়ান এডভোকেট মিসবাহুর রহমান আলম, এপেক্সিয়ান নিজাম শরীফ, এপেক্সিয়ান এডভোকট বদরুল আহমদ চৌধুরী, এপেক্সিয়ান রুহুল মঈন চৌধুরী প্রমুখ। অনুষ্ঠানে ২০১৮ সালের দায়িত্বপ্রাপ্ত সভাপতিরা তাদের অনুভূতি ব্যক্ত করেন। অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন এপেক্সিয়ান মাসুম আহমদ, এপেক্স আইডিয়ালস পেশ করেন এপেক্সিয়ান সুমন হোসাইন। জাতীয় সংগীত পরিবেশনের মাধ্যমে শুরু হওয়া অনুষ্ঠান শেষে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

ফেসবুক মন্তব্য
xxx