নিউজটি পড়া হয়েছে 339

ছাতকে দিন-দুপুরে ফিল্মি ষ্টাইলে মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী’র টাকা ছিনতাই।

ছাতক প্রতিনিধি ::: ছাতকে ফিল্মি ষ্টাইলে মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী এখলাছুন নেছার ৩ লাখ টাকা ছিনিয়ে নিয়েছে ছিনতাইকারীরা। এসময় তিনি ব্যাংক থেকে ‘মুক্তিযোদ্ধা ঋণ’ তুলে রিকশা যোগে ভাইকে সাথে নিয়ে সে বাসায় যাচ্ছিলো।

মঙ্গলবার বেলা দেড়টায় শহরের মুজিবুর রহমান কিন্ডার গার্ডেন এলাকায় এ দুর্ধর্ষ ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে।

এ সময় টাকার ব্যাগ না দেয়ায় ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে ছয়ফুল ইসলাম (৬০) ও এখলাছুন নেছা (৪৫) গুরুতর আহত হন। তাদেরকে ছাতক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ছয়ফুল ইসলাম কালারুকা ইউনিয়নের হাসনাবাদ গ্রামের মৃত সোনাহর আলীর পুত্র।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ঘটনার সময় শহরের মোগলপাড়া এলাকার মুক্তিযোদ্ধা নূর মিয়ার স্ত্রী গৃহ নির্মাণ ও অন্যান্য কাজের জন্যে ছাতক সোনালী ব্যাংক থেকে ৩ লাখ টাকা মুক্তিযোদ্ধা ঋণ উত্তোলন করেন। টাকা নিয়ে বাসায় যাবার পথে মন্ডলীভোগ এলাকায় মুজিবুর রহমান কিন্ডার গার্ডেনের কাছে পৌছলে ৩জন ছিনতাইকারি লাল রঙ্গের একটি পালসার মোটর সাইকেলে রিকশার গতিরোধ করে ছয়ফুল ইসলামের হাতে একাধিক ছুরকাঘাত করে ব্যাগটি ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

সিসি ক্যামেরা থেকে নেওয়া সন্দেহভাজন ছিনতাইকারীদের ছবি।

ধারণা করা হচ্ছে, ব্যাংক থেকে টাকা তোলার ব্যাপারে কোন ছিনতাইকারীর আগে থেকেই জানা ছিল। এতে ব্যাংক থেকে পিছু নিয়ে সহযোগীসহ এঘটনা করেছে।

পরে পশ্চিম দিকে পালিয়ে যাবার সময় সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিকের বাসার সিসি ক্যামেরা ও ছাতক চন্দ্রনাথ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সিসি ক্যামেরায় ধরা পড়তে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ছাতক থানার এসআই সফিকুল ইসলাম ঘটনাস্থলে পৌছে জড়িতদের গ্রেফতারের প্রচেষ্ঠা চালাচ্ছেন। ছাতক সোনালী ব্যাংক ম্যানেজার মোহাম্মদ আব্দুল জলিল জানান, কিছুক্ষণ আগে মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী এখলাছুন নেছাকে ব্যাংক থেকে ৩ লাখ টাকা মুক্তিযোদ্ধা ঋণ দেয়া হয়। ছাতক থানার অফিসার্স ইনচার্জ আতিকুর রহমান জড়িতদের গ্রেফতারে পুলিশী অভিযান অব্যাহত রেখেছেন বলে জানান।

ফেসবুক মন্তব্য
xxx