প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের বের করে বিদ্যালয়ে তালা দিলেন কলেজের প্রিন্সিপাল

জি,এস কছির আলী,দোয়ায়া বাজার প্রতিনিধিঃ সুনামগঞ্জ জেলার দোয়ারা বাজারে বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের স্কুল থেকে বের করে দিলেন দোয়ারা বাজার ডিগ্রী কলেজের প্রিন্সিপাল একরামুল হক। ১৯ এপ্রিল বৃহস্পতিবার দুপুরে দোয়ারা বাজার উপজেলার সদর ইউনিয়নের মংলারগাঁও গ্রামের বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র ছত্রীদের ক্লাস রুম থেকে  ক্লাস চলাকালিন সময়ে প্রিন্সিপাল উপস্থিত থেকে বের করে দেন  সা ইনবোর্ডও জোরপুর্বক তোলে নেন তিনি, সাইনবোর্ড তোলে নেয়ার পর বিদ্যালয়ে তালা দিয়ে শিক্ষক শিক্ষার্থীদের বিদ্যালয় থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

জানা যায় ১৯৯৪ সালে মংলারগাঁ বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নামে ৩৩ শতক ভূমি রেজিস্ট্রি করে দেন একই গ্রামের ঠাকুর চান দাসের পুত্র সারদা কান্ত দাস, এর পর থেকে বিদ্যালয়টি নিয়মিত পাঠদান চলে আসছিল। বিদ্যালয়ের ভবনটি ঝড়ের কবলে পরলে পরবর্তি সময়ে বিদ্যালয়ের কোন ঘর না থাকায় বিবিধ সমস্যার কারণে কয়েক বছর বিদ্যালয়ের পাট দান বন্ধ থাকে। এমতাবস্থায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জায়গা খালি থাকায় কলেজের নতুন ৪ তলা ভবন নির্মান করা হয়েছে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জায়গায়। এর পর প্রাথমিক বিদ্যালয় কমিটির পক্ষ থেকে কলেজ কতৃপক্ষের কাছে বিদ্যালয়ের জায়গা চাওয়া হলে কলেজ কতৃপক্ষ ভিপির জায়গায় কলেজের একটি টিন সেডের ঘর বিদ্যালয় পরিচালনা করা জন্য কলেজ কতৃপক্ষ জায়গাদেন।
বিদ্যালয়ের শিক্ষক রুবি রানি দাস বলেন, আমাদের বিদ্যালয়ের নিয়মিত ক্লাস করে আসছিলাম এমতাবস্থায় বৃহস্পতিবার দুপুরে হঠাৎ কলেজের প্রিন্সিপাল এসে আমাদের বিদ্যালয়ের সাইনবোর্ড তোলে নেন এবং তিনি হুকুম দিয়ে কলেজের দপ্তরিদের দিয়ে বিদ্যালয় থেকে ছাত্র ছাত্রীদের বের করে দেন। আগামি ২৩ তারিখ থেকে ছাত্র ছাত্রীদের প্রথম সাময়ীক পরিক্ষা আমরা এখন ১৬২ জন ছাত্র ছাত্রী নিয়ে নিরুপায় হয়ে গেছি। এ ব্যপারে দোয়ারা বাজার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) প্রশান্ত কুমার বিশ্বাস বলেন, মংলারগাঁও বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকগণ মৌখিক ভাবে অভিযোগ করে গেছেন, বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে।

ফেসবুক মন্তব্য
xxx