পরবর্তী টার্গেট তারেক রহমান

সিলনিউজ অনলাইন ডেস্কঃ  খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, তাকে তিলে তিলে নিঃশেষ করার প্রক্রিয়ার পর এখন পরবর্তী টার্গেট হচ্ছেন তারেক রহমান। আজ বুধবার রাজধানীর নয়াপল্টন দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ ব্রিফিংয়ে তিনি এ কথা বলেন। এক প্রশ্নের জবাবে রিজভী আহমেদ বলেন, এটাতো শেখ হাসিনার বিচার। এখানে কোনো আইনের শাসন নেই। এটা শেখ হাসিনার বিচার, আওয়ামী বিচার প্রকৃত আইনের বিচার নয়। আইনের শাসনকে কালো কাপড় দিয়ে তুলে রেখেছে।

বিচারকরা কখনো কখনো ন্যায়ের পক্ষে রায় দিলে তারা দেশে থাকতে পারেন না। সুতরাং তিনি তো চাইবেন রাজনৈতিক প্রতিপক্ষকে ধ্বংস করতে। রিজভী আরো বলেন, শেখ হাসিনা যেমন অন্যায়ভাবে বিএনপি চেয়ারপারসনকে কারারুদ্ধ করে রেখেছে, জুলুম নির্যাতন করছে তার চিকিৎসা করতে দিচ্ছে না। মানুসিক ও শারীরিক ভাবে হেনস্তা করছে। এখন শেখ হাসিনার পরবর্তী টার্গেট হচ্ছেন তারেক রহমান। তাকে টার্গেট করে তার যে মনের ক্ষোভ ও প্রতিহিংসা চরিতার্থ করার রোডম্যাপ খোলার চেষ্টা করছেন। এতে লাভ হবে না। কারণ পৃথিবীর সব দেশ তো আর শেখ হাসিনা মত একনায়কতান্ত্রিক গণতন্ত্রের দেশ নয়। অন্যান্য দেশে মানবিক মুল্যবোধ আছে। সেখানে অনেক কিছুই মানবাধিকারের সঙ্গে জড়িত আছে। 
খালেদার জীবন নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করে তিনি বলেন, আমরা বারবার বলে আসছি, খালেদা জিয়াকে তিলে তিলে নিঃশেষ করার প্রক্রিয়া চালাচ্ছে সরকার। সরকারি মেডিকেল বোর্ড খালেদা জিয়ার চিকিৎসায় নানা ব্যবস্থার কথা বললেও কারাগারে চিকিৎসা হচ্ছে না। এতেই  বোঝা যাচ্ছে সরকারের গভীর চক্রান্ত রয়েছে। এসময় খালেদা জিয়াকে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়ার দাবি জানান রিজভী। সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, ত্রাণ ও দুর্যোগ বিষয়ক সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ সিদ্দিকী, প্রকাশনা সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিব, সহ প্রচার আসাদুল করিম শাহীন, সহ দফতর সম্পাদক মুনির হোসেন প্রমুখ। 

ফেসবুক মন্তব্য
xxx