নিউজটি পড়া হয়েছে 39

এয়ারপাের্ট থানা এলাকা থেকে প্রতারক চক্রের তিন সদস্যকে আটক করেছে র‍্যাব-৯।

সিলনিউজ২৪.কমঃ সিলেট নগরীর বিভিন্ন পয়েন্টে প্রতারক চক্রের সদস্যরা প্রতারণার ফাঁদ পেতে সাধারণ ও নিরীহ মানুষকে প্রতারণার শিকারে পরিনত করে আসছে। সিএনজিতে সাধারণ যাত্রীদেরকে প্রতারক চক্র নকল স্বর্ণের বার দেখিয়ে আসল স্বর্ণের বারের কথা বলে তাদেরকে ঠকাচ্ছে।

স্বর্ণের বার ক্রয়ের পরে প্রতারিত ব্যক্তি বাসায় গিয়ে দেখতে পায় তার নিকট স্বর্ণের বারটি সােনালি রং এর পিতলের তৈরি। একটি ছােট পার্সে বিশেষ কৌশলে মােড়ানাে থাকে নকল স্বর্ণের বারগুলাে এর সাথে হাতে লেখা একটি চিরকুট থাকে যেখানে স্বর্ণের পরিমাণ লেখা থাকে ঐ চিরকুটটি পড়ার পর যেন মনে হয় যে পার্সটি কারাে হারিয়ে গিয়েছে। তখন সিএনজিতে বসা সাধারন যাত্রীকে এই প্রতারকচক্র লােভ দেখিয়ে ফাঁদে ফেলে সর্বস্ব লুটে নিয়ে পালিয়ে যায়। ৯ এপ্রিল ২০১৮ ইং তারিখ র‍্যাবের গােয়েন্দা দলের অনুসন্ধানে জানা যায় যে, এরূপ একটি প্রতারক চক্র সিলেটে অবস্থান করছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে র্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন-৯, স্পেশাল কোম্পানী, সিলেট ক্যাম্পের একটি বিশেষ দল অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মােঃ মনিরুজ্জামান এর নেতৃত্বে সকাল ১০.৪৫ ঘটিকার সময় এসএমপির এয়ারপাের্ট থানা এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে। অভিযানে এসএমপির এয়ারপাের্ট থানাধীন কলাপাড়া রােডস্থ ফ্যাশন টেইলার্স দোকানের বিপরীত পাশে পুকুর পাড় পাকা রাস্তার উপর ০১ (এক) টি নকল স্বর্ণের বার, তিনটি মােবাইল সেট সহ মূল প্রতারক চক্রের ০৩ (তিন) সদস্যকে আটক করে র্যাব-৯। আটককৃত ব্যক্তিদের নাম ও ঠিকানা যথাক্রমে-১। মােঃ নবীনুর@রবীন (২৫), পিতা-মােঃ আবিনুর, গ্রাম- রুপনগর, থানা- মধ্যনগর, জেল- সুনামগঞ্জ, বর্তমানে-ধরাধরপুর নজরুল মিয়ার কলােনী, থানা-দক্ষিন সুরমা, জেলা-সিলেট ২। মােঃ সিরাজুল ইসলাম (২৩), পিতা-আব্দুল হাসেম, গ্রাম-শেলস, থানা-ধর্মপাশা, জেলা-সুনামগঞ্জ, বর্তমানেসবুজ বাজার কলাপাড়া, থানা-বিমান বন্দর, জেলা-সিলেট, ৩। মােঃ আব্দুল হেকিম (২১), পিতা-মৃত আবদুল অহিদ, গ্রাম-ধরাধরপুর, থানা-দক্ষিণ সুরমা, জেলা-সিলেট। আটককৃত প্রতারকরা সিলেট জেলার বিভিন্ন থানা এলাকায় চুরি ও সিলেট মহানগরীর সংঘবদ্ধ প্রতারক ও ছিনতাইকারী চক্রের সদস্য বলে জানায় এবং প্রতারনার কথা প্রাথমিক জিঙ্গাসাবাদে স্বীকার করে। উদ্ধারকৃত নকল স্বর্ণের বার এবং গ্রেফতারকৃত আসামীদের এসএমপির এয়ারপাের্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

ফেসবুক মন্তব্য