নৌকায় ভোট দিলে কেউ খালি হাতে ফেরেনা, উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষায় নৌকায় ভোট দেয়ার আহবান প্রধানমন্ত্রী’র।

স্টাফ রিপোর্টার ::: নৌকায় ভোট দিলে কেউ খালি হাতে ফেরেনা। এই নৌকায় ভোট দিয়েই এদেশের মানুষ মাতৃভাষায় কথা বলার সুযোগ পেয়েছে, নৌকায় ভোট দিয়েই স্বাধীনতা পেয়েছে আর এই নৌকাই যখন ক্ষমতায় আসে তখন দেশের উন্নতি হয় উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, আমরা উন্নয়নে বিশ্বাসী আর সেই উন্নয়ন গ্রাম পর্যায়ের সাধারণ মানুষের উন্নয়নের লক্ষেই আমরা কাজ করে যাচ্ছি। 

আজ (রোববার) বিকেলে চাঁদপুর স্টেডিয়ামে জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন।

নৌকায় ভোট দিলে উন্নয়ন হয় উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সাধারণ মানুষের উন্নয়ন আমাদের লক্ষ। আমাদের একটাই লক্ষ বাংলাদেশের মানুষ শান্তিতে থাকুক। তিনি বলেন, আপনারা জানেন বিএনপি ক্ষমতায় এসে গ্রেনেড হামলা, বোমা হামলা করে বাংলাদেশকে জঙ্গি দেশ বানিয়েছিল। আন্দোলনের নামে বাসে, ট্রেনে, লঞ্চে আগুন দিয়ে মানুষ মেরেছে। আমরা তাদের আগুন সন্ত্রাসকে মোকাবেলা করেছি। তারা যে জঙ্গিদের সৃষ্টি করেছিল তাদের আমরা নির্মূল করেছি। বিএনপি ক্ষমতায় এসে আগুন দিয়ে মানুষ পুড়িয়ে পারে, আর আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসে উন্নয়ন দেয়, শান্তি দেয়। আমাদের লক্ষ্য স্বাধীনতার সুফল বাংলাদেশের মানুষ পাবে।

চাঁদপুরে মেডিক্যাল কলেজ করার ঘোষণা দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আপনাদের এমপি একজন ডাক্তার, তাই এখানে মেডিক্যাল কলেজ না হয়ে পারেনা। চাঁদপুরে মেডিক্যাল কলেজ করার প্রয়োজনীয় সব আমরা শুরু করব।

প্রাইমারী থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পর্যন্ত বৃত্তি প্রদান করেছি উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বছরের প্রথম দিন কোমলমতি শিশুদের হাতে আমরা বিনামূল্যে বই তুলে দিয়েছি। ছাত্রীদের বৃত্তির টাকা তাদের মায়েদের মোবাইলে সরাসরি দেওয়া হচ্ছে উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, আমাদের ছেলে মেয়েরা শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে প্রযুক্তির ব্যবহার করে মানুষের মতো মানুষ হবে সেইটাই আমরা চাই। কম্পিটার শিক্ষাকে আমরা বাধ্যতামূলক করে দিয়েছি। যাথে করে আমাদের ছেলে মেয়েরা প্রযুক্তি ব্যবহার করে দেশে বিদেশে কাজ করতে পারে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসেই মোবাইল ফোন মানুষের হাতে হাতে তুলে দিয়েছি। মানুষের জীবন যাত্রার মান উন্নত হচ্ছে। ঘরে বসে মোবাইল ব্যাংকিংসহ দেশে বিদেশে সহযেই যোগাযোগ করতে পারছে। ইন্টারনেটের মাধ্যমে সব ধরণের প্রয়োজনীয় কাজ করতে পারছে। অচিরেই বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ করা হচ্ছে।

ফেসবুক মন্তব্য
xxx