নিউজটি পড়া হয়েছে 95

সুনামগঞ্জ পৌরসভায় উপনির্বাচনে ভোট চলছে

সিলনিউজ অনলাইন ডেস্কঃ  সুনামগঞ্জ পৌরসভায় মেয়র পদের উপনির্বাচনের ভোটগ্রহণ চলছে। সকাল আটটা থেকে পৌরসভার ২৩টি কেন্দ্রে ভোট নেওয়া শুরু হয়। এর পর বৃষ্টির কারণে কেন্দ্রগুলোতে ভোটারের উপস্থিতি ছিল কম। বৃষ্টি থামার পর ভোটার উপস্থিতি বেড়েছে।

জেলা নির্বাচন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, সুনামগঞ্জ পৌরসভায় এবার মোট ভোটার ৪২ হাজার ৩২২ জন। কেন্দ্র আছে ২৩টি। এসব কেন্দ্রে ভোট কক্ষ ১১৭ টি। 
গত ১ ফেব্রুয়ারি পৌরসভার মেয়র আয়ূব বখত জগলুল হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। এরপর উপনির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন।

উপনির্বাচনে তিন মেয়র প্রার্থী হলেন আওয়ামী লীগের নাদের বখত, বিএনপির দেওয়ান সাজাউর রাজা চৌধুরী ও স্বতন্ত্র প্রার্থী দেওয়ান গণিউল সালাদীন। নাদের বখত প্রয়াত মেয়র আয়ূব বখত জগলুলের ছোট ভাই। দেওয়ান গণিউল সালাদীন ও সাজাউর রাজা চৌধুরী মরমি কবি হাসন রাজার প্রপৌত্র, তাঁরা সম্পর্কে চাচাতো ভাই।

নাদের বখত সকালে শহরের পিটিআই কেন্দ্রে, দেওয়ান সাজাউর রাজা চৌধুরী বড়পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এবং দেওয়ান গণিউল সালাদীন লবজান চৌধুরী বালিকা উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট দেন। ভোট দেওয়ার পর তিন প্রার্থীই জয়ের ব্যাপারে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

সকাল সাড়ে আটটায় শহরের মোহাম্মদপুর এলাকার ব্লু স্কাই একাডেমী কেন্দ্রে গিয়ে দেখা যায়, ভোটারদের কোনো ভিড় নেই। কেন্দ্রে ভোটগ্রহণের দায়িত্বে থাকা ব্যক্তিরা জানান, ভোট নেওয়া শুরু হওয়ার ১৫ মিনিট পরই প্রবল বর্ষণ শুরু হয়। প্রায় আধঘণ্টা টানা বৃষ্টি ছিল। তাই শুরুতে ভোটার উপস্থিতি ছিল কম। বৃষ্টি থামার পর ভোটার উপস্থিতি বাড়ছে।

শহরের ষোলঘর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, সরকারি জুবিলী উচ্চবিদ্যালয়, এইচ এম পি উচ্চবিদ্যালয়, বুলচান্দ উচ্চবিদ্যালয়, সরকারি মহিলা কলেজ কেন্দ্রে গিয়ে ভোটারদের উপস্থিতি কম দেখা যায়।

ওয়েজখালী এলাকার হোসেন বখত ফরিদা বখত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিসাইডিং কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন জানান, তাঁর কেন্দ্রে মোট ভোটার ২ হাজার ৭১০ জন। সকাল সাড়ে নয়টা পর্যন্ত তিন শ’র মতো ভোট পড়েছে। প্রথম দিকে ভোটারের উপস্থিতি কম থাকলেও বৃষ্টি থাকার পর বাড়ছে।

সকাল সাড়ে নয়টায় লবজান চৌধুরী বালিকা উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্রে গিয়ে ভোটারদের সারি দেখা যায়। ওই কেন্দ্রের প্রিসাইডিং কর্মকর্তা মাহমুদুজ্জামান জানান, শুরুতে কম থাকলেও এখন আমার এখানে ভোটারের উপস্থিতি ভালো। সময় গেলে ভোটার উপস্থিতি বাড়বে।

নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আবদুল মোতালেব বলেন, শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোটগ্রহণ হচ্ছে। সার্বিক পরিস্থিতি ভালো। আশা করি, এভাবেই ভোট নেওয়া হবে।

সুনামগঞ্জ পৌরসভায় সর্বশেষ ২০১৫ সালের ৩০ ডিসেম্বর ভোট হয়। এ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে মেয়র নির্বাচিত হন আয়ূব বখত জগলুল। তিনি পেয়েছিলেন ১৪ হাজার ৮৪৫ ভোট। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী দেওয়ান গণিউল সালাদীন পেয়েছিলেন ১০ হাজার ৪৮৬ ভোট। বিএনপির প্রার্থী মো. শেরগুল আহমেদ পেয়েছিলেন ২ হাজার ৪১৪ ভোট।

সূত্রঃ প্রথম আলো

ফেসবুক মন্তব্য
xxx