নিউজটি পড়া হয়েছে 91

স্মিথ–ওয়ার্নার ১ বছর, ব্যানক্রফট ৯ মাসের জন্য নিষিদ্ধ।

সিলনিউজ অনলাইনঃঃ বল বিকৃতির ঘটনায় সদ্য পদত্যাগ করা অস্ট্রেলীয় অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ ও সহ–অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নারকে ১২মাসের জন্য নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেট বোর্ড ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। একই অপরাধে ক্যামেরন ব্যানক্রফট’কে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে নয় মাসের। এ ব্যাপারে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা খুব শিগগির দেওয়া হবে।

গত শনিবার দক্ষিণ আফ্রিকা ও অস্ট্রেলিয়ার মধ্যকার কেপটাউন টেস্টে বল বিকৃতির ঘটনা ঘটে। অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটার ক্যামেরন ব্যানক্রফটকে দেখা যায় হলুদ টেপ-জাতীয় কিছু হাতে নিয়ে বল ঘষতে। পুরো ব্যাপারটি ধরা পড়ে টেলিভিশন ক্যামেরায়। পরে অস্ট্রেলীয় অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ এক চাঞ্চল্যকর সংবাদ সম্মেলনে স্বীকার করেন বল বিকৃতির পরিকল্পনার কথা। বিষয়টি আলোড়ন তুলেছে গোটা ক্রিকেট দুনিয়ায়। বল বিকৃতির স্বীকারোক্তির পরের দিনই অস্ট্রেলীয় সরকার স্মিথকে অধিনায়কত্বের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়ার ব্যাপারে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়াকে চাপ দেয়। ফলে অধিনায়কত্বের পদ থেকে সরে দাঁড়াতে হয় তাঁকে। সহ-অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নারও সরে দাঁড়ান তাঁর পদ থেকে। ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা আইসিসি অবশ্য বল বিকৃতির এই ঘটনায় একটি টেস্ট থেকে নিষিদ্ধ করে স্মিথকে। জরিমানা করা হয় তাঁর ম্যাচ ফি। ব্যানক্রফটকে নিষেধাজ্ঞা না দিলেও করা হয় ম্যাচ ফির ৭৫ শতাংশ জরিমানা।

গতকালই ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার প্রধান নির্বাহী জেমস সাদারল্যান্ড এক ঘোষণার মাধ্যমে দক্ষিণ আফ্রিকা সফর থেকে প্রত্যাহার করে নেন এই তিন ক্রিকেটারকে। স্মিথের পরিবর্তে প্রোটিয়াদের বিপক্ষে সিরিজের শেষ টেস্টে নেতৃত্ব দেবেন টিম পেইন। তিন ক্রিকেটারের পরিবর্তে দক্ষিণ আফ্রিকা উড়ে যাচ্ছেন ম্যাট রেনশ, জো বার্নস ও গ্লেন ম্যাক্সওয়েল।

ক্রিকইনফো/

ফেসবুক মন্তব্য
xxx