নিউজটি পড়া হয়েছে 74

রোহিঙ্গা নিধন বন্ধে নিরাপত্তা পরিষদ ব্যর্থ হয়েছে : নিকি হ্যালি

সিলনিউজটুয়েন্টিফোরডটকম ঃঃ মায়ানমারে রোহিঙ্গা নিধন বন্ধে নিরাপত্তা পরিষদ ব্যর্থ হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন জাতিসংঘে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত নিকি হ্যালি। মঙ্গলবার রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন ও মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে নিরাপত্তা পরিষদের শুনানিতে তিনি এ মন্তব্য করেন।

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন সুনিশ্চিত করতে রোহিঙ্গা নিধনযজ্ঞে জড়িতদের জবাবদিহিতার আওতায় আনার দাবি জানিয়েছে অধিকাংশ সদস্য রাষ্ট্র। এদিকে, রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনকে অগ্রাধিকার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করার কথা জানিয়েছে নিরাপত্তা পরিষদ।

মঙ্গলবার ২০১৮ সালের প্রথম পূর্ণ বৈঠকে বসে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ। বৈঠকে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে মানবাধিকার পরিস্থিতি তুলে ধরে সভায় প্রতিবেদন উপস্থাপন করে জাতিসংঘ শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউ. এন. এইচ. সি. আর। নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতি মনসুর আইয়্যাদ শাহ আবদুল আলোতাইব্যি’ র সভাপতিত্বে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, চীন, রাশিয়া, সুইডেন পেরুসহ সদস্য রাষ্ট্রগুলো অংশ নেয়।

এসময় যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্টদূত নিকি হ্যালি রোহিঙ্গা নিধনের দায়ভার নিয়ে রোহিঙ্গাদের নিরাপদ প্রত্যাবাসনের উপর জোর দেন। রাখাইন রাজ্য সরেজমিন পরিদর্শনের উপর জোর দেন রাশিয়া- চীন ছাড়া অন্য সব রাষ্ট্রগুলো। তবে চীনের অবস্থান ছিল আগের চেয়ে অনেকটা গঠনমূলক। মিয়ানমারের আন্তরিকতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন জাতিংসঘে বাংলাদেশী রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন।

বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কে ভিত্তিতে দ্বিপক্ষীয়ভাবে সংকট সমাধানের আশা ব্যক্ত করে মিয়ানমার রোহিঙ্গা সমস্যার পেছনে সন্ত্রাসবাদের উত্থানের যোগসাজশকে তুলে ধরার চেষ্টা করে জাতিসংঘে মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূত।

পরে রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন সময় টেলিভিশনকে, রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের চ্যালেঞ্জগুলো চিহ্নিত করে সেগুলো মোকাবিলায় বিশ্ব সম্প্রদায়ের অঙ্গীকারের কথা জানান।

সূত্রঃ সময় টিভি

ফেসবুক মন্তব্য
xxx