নিউজটি পড়া হয়েছে 128

দুর্নীতি, সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদের সঙ্গে জড়িতদের বিচার হবেই : ইতালিতে শেখ হাসিনা

সিলনিউজটুয়েন্টিফোরডটকম ঃঃ দুর্নীতি, সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদের সঙ্গে যারা জড়িতদের বিচার হতেই হবে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রী মঙ্গলবার ইতালির স্থানীয় সময় রাতে প্রবাসী বাংলাদেশীদের দেয়া সংবর্ধনায় এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, বর্তমান সরকারের নেয়া পদক্ষেপে সারাদেশে আজ উন্নয়ন ও অগ্রগতি সাধিত। বাংলাদেশকে উন্নত ও শান্তিপূর্ণ দেশ হিসেবে গড়ে তুলতে চায় চায় সরকার। আর তা তখনই সম্ভব যখন দেশ থেকে দুর্নীতি-স্বজনপ্রীতি ও জঙ্গিবাদ দূর হবে।

এ উন্নয়নে প্রবাসে কর্মরত বাংলাদেশের নাগরিকদের অবদান তুলে ধরে তিনি বলেন, পঁচাত্তরে বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর দেশ আবারো পিছিয়ে পড়ে। যারা অবৈধভাবে ক্ষমতা দখল করে তারা কখনো দেশের উন্নয়ন চায় না।

দুর্নীতির মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে আদালতের রায় প্রসঙ্গে শেখ হাসিনা বলেন, বর্তমান সরকারের সময় বিচার বিভাগ সম্পূর্ণ স্বাধীন। বিএনপি নেত্রী সকল আইনি অধিকার পেয়েছেন।

উন্নয়নের ধারাবাহিকতা নিশ্চিতে যেকোনো মূল্যে দেশে শান্তি বজায় রাখার ওপর গুরুত্ব দেন প্রধানমন্ত্রী।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আগে একই দিন প্রধানমন্ত্রী ইফাদের সদর দপ্তরে সংস্থাটির প্রেসিডেন্ট গিলবার্ট এফ হোউংবোর সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করেন। পরে পররাষ্ট্র সচিব এম শহীদুল হক এক ব্রিফিংয়ে বলেন, বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী ও ইফাদ প্রেসিডেন্ট বাংলাদেশে কৃষি ও অবকাঠামো উন্নয়নের জন্য সংস্থাটির সহযোগিতা আরো জোরদারের বিষয়ে আলোচনা করেন। এ সময় রোহিঙ্গা প্রসঙ্গটিও উঠে আসে।

বৈঠকে গিলবার্ট প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বের ভূয়সী প্রশংসা করে বলেন, উন্নয়নের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ বিপুল সম্ভাবনাময় দেশ। ফলপ্রসূ আলোচনার পর উভয়পক্ষের মধ্যে বাংলাদেশের ৬টি জেলার অবকাঠামো ও বাজার উন্নয়নে ৯২ মিলিয়ন ডলারের ঋণচুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।

চুক্তির আওতায় পঞ্চগড়, রংপুর, দিনাজপুর, নীলফামারী, গাইবান্ধা ও জামালপুর জেলায় গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর উন্নয়নের জন্য প্রকল্প গ্রহণ করা হবে। প্রকল্পের কাজ এ বছর শুরু হয়ে চলবে ২০২৪ সাল পর্যন্ত। আর এতে উপকৃত হবে জেলাগুলোর ৩ কোটি ৪০ লাখ মানুষ।

সূত্রঃ দেশ টিভি

ফেসবুক মন্তব্য
xxx