নিউজটি পড়া হয়েছে 316

‘খালেদার সেলে টিভি-এসি, বাইরে এরশাদের কুলগাছ’ শিরোনামে আনন্দবাজারের প্রতিবেদন।

নিজস্ব প্রতিবেদক ঃঃ দুর্নীতি মামলায় ৫ বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত হয়ে কারাগারে রয়েছেন বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া। আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলোতেও সংবাদটি ফলাও করে প্রচার হয়। ভারতের প্রভাবশালী পত্রিকা আনন্দবাজার পত্রিকা আজ (শনিবার) ”খালেদার সেলে টিভি-এসি, বাইরে এরশাদের কুলগাছ” শিরোনামে লিখেছে ”দুর্নীতির দায়ে ২৮ বছর আগে বাংলাদেশের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি হুসেইন মহম্মদ এরশাদকে জেলে যেতে হয়েছিল খালেদা জিয়ার আমলে। ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডে সেই পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগার এখন বন্দিশূন্য। শহরের বাইরে কেরানিগঞ্জে আধুনিক সংশোধনাগার গড়ে হাজার দু’য়েক বন্দিকে সেখানে স্থানান্তর করা হলেও কারা মন্ত্রকের কিছু প্রশাসনিক কাজ এখনও ব্রিটিশ আমলে তৈরি পুরনো জেলটিতে হয়। তবে নিঝুম এই পুরনো কারাগারেই বৃহস্পতিবার রাখা হয় দুর্নীতির মামলায় কারাদণ্ড পাওয়া দ্বিতীয় রাষ্ট্রপ্রধান খালেদা জিয়াকে। এরশাদের দল জাতীয় পার্টি এই ঘটনাকে ‘ইতিহাসের প্রতিশোধ’ হিসেবে দেখছে। দলের সাংসদ ইয়াহইয়া চৌধুরী বলেন- এরশাদ জেলে একটি কুলগাছ পুঁতেছিলেন, এত দিনে তাতে নিশ্চয়ই কুল হচ্ছে। জেল কর্তৃপক্ষকে বলব, কারাবিধানে আপত্তি না থাকলে সেই কুল যেন তাঁরা খালেদাকে খেতে দেন ”

আনন্দবাজার পত্রিকা আরও লিখেছে, বিএনপি নেত্রীর জন্য সেই ঘরে এসি বসেছে। ডিশ অ্যান্টেনা লাগানো টেলিভিশন আনা হয়েছে। নতুন আরামদায়ক বিছানারও বন্দোবস্ত করে হয়েছে। পাশে একটি রান্নাঘর ও আধুনিক শৌচাগারও তৈরি করা হয়েছে। খালেদার আইনজীবীর আবেদনে তাঁর ব্যক্তিগত গৃহকর্মী ফতেমাকেও সঙ্গে থাকার অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

(আনন্দবাজার অনলাইন এর স্ক্রিনশট)

 

ফেসবুক মন্তব্য