হঠাৎ তারকা নয়, ধীরে ধীরে একজন মিডিয়া কর্মী হতে চান দিবা।

সিলনিউজ২৪.কমঃঃ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম বর্ষের ছাত্রী ফাহমিদা দিবা। একজন মেধাবী শিক্ষার্থী হিসেবে পরিচিতি থাকলেও মিডিয়াতেও কম পরিচিত নন। কারণ ছোটবেলা থেকেই নাচ, গান ও অভিনয়ে তুখোড় ছিলেন। ছবি আঁকাতেও কম যান না। এ সকল ক্ষেত্রে তার পুরস্কারের ঝুলিটিও অনেক সমৃদ্ধ।

সাংস্কৃতিক ক্ষেত্রে হাতে খড়ি সম্পর্কে দিবা বলেন, ‘ছোটবেলা থেকে গান এবং নাচ শিখতাম। বাংলাদেশ শিশু একাডেমিতে নাচের প্রতিযোগিতায় আমি প্রথম পুরস্কার পাই। এরপর আমার ও পরিবারের আগ্রহ আরও বেড়ে যায়। এরপর শুধুই সামনে চলা। বিটিভি, চ্যানেল আইসহ অনেক চ্যানেলে নাচ-গানের অনুষ্ঠান আমি অংশ নিয়েছি। সময় টিভির ‘মুক্তিযুদ্ধকে জানো’- নামের একটি প্রোগ্রামেও আমার কাজ করার সুযোগ হয়। একটু বড় হলে এরসঙ্গে শুরু করি উপস্থাপনা। তবে পড়াশোনার জন্য এখনো মিডিয়াকে আমি প্রফেশন হিসেবে গ্রহণ করতে পারিনি।

দিবার এর পরের পথচলা সম্পর্কে সময় সংবাদকে বলেন, ‘থিয়েটারে যোগ দেয়ার পর থেকেই আসলে আমি মিডিয়ার প্রতি বাড়তি এক টান অনুভব করি আমি। এরপর নাটক, টিভিসিতে কাজ করতে শুরু করি।

তার উল্লেখযোগ্য কাজ সম্পর্কে তিনি সময় সংবাদকে বলেন, ‘একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলে ‘ক্রাইম পেট্রোল’ নামের একটি প্রোগ্রামে কাজ করেছি। কাজ করেছি। আরো দুটি টিভি প্রোগ্রাম ‘ড্রাগস’ ও ‘ভালোবাসার এক অংশ’তেও কাজের সুযোগ হয় আমার। টিভিসির মধ্যে প্রথম কাজ করা হয়েছে মেন্টোসে। এরপর ‘অদম্য বাংলাদেশ’ ও গ্রামীণফোনের টিভিসিতে কাজ করেছি।

শিশু শিল্পী হিসেবে শুরু করা দিবা এখন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। আর এখন থেকেই নিয়মিত হতে চান মেধাবী শিক্ষার্থী দিবা। তার মেধার প্রতিফলন আছে তার একাডেমিক ফলাফলেও। নিয়মিত ক্লাসে ছিলেন প্রথম স্থানে। আর ক্লাস ফাইভ ও এইটের বৃত্তিও রয়েছে তার ঝুলিতে। এসএসসি ও এইচএসসিতেও পেয়েছেন গোল্ডেন এ প্লাসের দেখা। আর এখন পড়ছেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের বোটানি বিভাগে।

মেধাবী দিবা এবার চান সমান তালে অভিনয়, টিভিসি ও গান নিয়ে কাজ করতে। নিয়মিত হতে চান ছোট পর্দায়। আর বড় পর্দার বিষয়ে এখনিই সিদ্ধান্ত না নিলেও এর ভার তিনি সময়ের হাতেই ছেড়ে দেন। এভাবেই সামনের দিকে এগিয়ে যেতে চান প্রতিশ্রুতিশীল শিল্পী দিবা। তার মনের কোনে উকি দেয়া স্বপ্নটি হঠাৎ তারকা হয়ে নয় বরং ধীরে ধীরে একজন প্রফেশনাল মিডিয়া কর্মী হতে চান তিনি। আর এ লক্ষেই পথচলা দিবার।

সময় টিভি/

ফেসবুক মন্তব্য
xxx