নিউজটি পড়া হয়েছে 232

নতুন সৌরমন্ডলের সন্ধান পেয়েছে নাসা।

সিলনিউজ২৪.কমঃঃ আমাদের সৌরমণ্ডলের মতোই দেখতে আরও একটি সৌরমণ্ডল রয়েছে ব্রহ্মাণ্ডে। এই সৌরমণ্ডলে যেমন বুধ থেকে নেপচুনকে নিয়ে রয়েছে আটটি গ্রহ (প্লুটো গ্রহের মর্যাদা হারিয়েছে), অবিকল ওই সৌরমণ্ডলেও গ্রহের সংখ্যা আট। শুধু তাই নয়, আমাদের সৌরমণ্ডলে গ্রহগুলো ঠিক যেভাবে একের পর এক সাজানো রয়েছে, দুই হাজার ৪৪৫ আলোকবর্ষ দূরে, ‘ড্রাকো’ নক্ষত্রপুঞ্জে থাকা সেই সৌরমণ্ডলের আটটি গ্রহ রয়েছে একইভাবে। বুধ, মঙ্গল, শুক্র, পৃথিবীর মতো ছোট চেহারার পাথুরে গ্রহগুলো যেমন আমাদের সৌরমণ্ডলে রয়েছে সূর্যের কাছাকাছি আর বৃহস্পতি, শনি, ইউরেনাস ও নেপচুনের মতো বড় চেহারার গ্যাস ও বরফে ভরা গ্রহগুলো রয়েছে সূর্যের থেকে দূরে, সদ্য আবিষ্কৃত সৌরমণ্ডলের আটটি গ্রহ ঠিক সেইভাবেই রয়েছে। এর আগে আমাদের সৌরমণ্ডলের মতো অবিকল চেহারার আর কোনো নক্ষত্রমণ্ডলের সন্ধান মেলেনি।

সম্প্রতি নাসার সদর দফতরে এক সাংবাদিক সম্মেলনে এ কথা জানানো হয়।

নাসার অ্যাস্ট্রোফিজিক্স ডিভিশনের জ্যোতির্বিজ্ঞানী পল হার্ৎজ বলেছেন, অবিকল আমাদের সৌরমণ্ডলের মতো চেহারার এই সৌরমণ্ডলে সাতটি গ্রহের খোঁজ আগেই মিলেছিল। এবার জানা গেল সেখানে রয়েছে অষ্টম গ্রহ। যার নাম ‘কেপলার-৯০-আই’। এই গ্রহটি দেখতে অবিকল পৃথিবীর মতো। পাথুরেও। সেটি তার নক্ষত্রকে পাক মারে ১৪.৪ পার্থিব দিনে। তবে সেটি তার নক্ষত্রের (কেপলার-৯০) বেশি কাছে আছে বলে তার গা পুড়ে যাচ্ছে অনেক বেশি তাপে। তাপমাত্রা অন্তত ৮০০ ডিগ্রি ফারেনহাইট।

নাসা জানিয়েছে, যেহেতু এই সৌরমণ্ডলের চেহারা অবিকল আমাদের সৌরমণ্ডলের মতোই, সেখানকার আটটি গ্রহ সাজানো হয়েছে আমাদের ব্রহ্মাণ্ডের মতো করেই, তাই সেই সৌরমণ্ডলে প্রাণের খোঁজ পাওয়ার সম্ভাবনা জোরালো হয়ে উঠলো। শুধু তাই নয়, ওই সৌরমণ্ডলের আরেকটি গ্রহ ‘কেপলার-৯০-এইচ’ তার নক্ষত্রের থেকে ঠিক সেই দূরত্বেই রয়েছে, আমাদের পৃথিবী সূর্য থেকে যতটা দূরে। এই গ্রহটিতে জল তরল অবস্থায় থাকতে পারে বা পৃথিবীর মতো পুরু বায়ুমণ্ডলও থাকতে পারে। ফলে, প্রাণের সৃষ্টি বা তার টিকে থাকার পক্ষে সহায়ক হয়ে উঠতে পারে এই গ্রহটির পরিবেশ।

সূত্র: আনন্দবাজার

ফেসবুক মন্তব্য
xxx