আজ মধ্যরাতে শেষ হচ্ছে রংপুর সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচনী প্রচারণা।

সিলনিউজটুয়েন্টিফোরডটকম ::: রংপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে শেষ মুহূর্তের প্রচারণা চলছে জোরেশোরেই। আসন্ন জাতীয় নির্বাচনের আগে রংপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনকে ভোটের মাঠের সেমিফাইনাল হিসেবে দেখছে আওয়ামী লীগ। অন্যদিকে এই নির্বাচনে সরকার দলীয় প্রার্থীকে হারিয়ে সরকারকে পরিবর্তনের বার্তা দিতে চায় বিএনপি। অন্যদিকে নির্বাচন কমিশনের ওপর পূর্ণ আস্থার কথা বলছে জাতীয় পার্টি।

বৃহস্পতিবার রংপুর সিটিতে ভোট। আজ (মঙ্গলবার) মধ্যরাত থেকে বন্ধ হবে নির্বাচনী প্রচার। শেষ মুহূর্তে ভোটের মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন প্রার্থী ও তার সমর্থকেরা। স্থানীয় নেতাদের পাশাপাশি গণসংযোগে নেমেছেন দলের কেন্দ্রীয় নেতারাও।

বিএনপি বলছে, এই নির্বাচনের মধ্য দিয়ে সরকার পরিবর্তন না হলেও আওয়ামী লীগের বিপক্ষে রায় দেবে জনগণ। আর আওয়ামী লীগ বলছে, অবাধ নির্বাচনে জনগণ যাকে খুশি তাকে ভোট দেবে।

২০১২ সালে রংপুর সিটি নির্বাচনে ঝন্টু প্রথম মেয়র নির্বাচিত হলেও জাতীয় পার্টির মোস্তফা প্রায় ৮০ হাজার ভোট পেয়েছিলেন। এবার দলীয় প্রার্থীর ব্যক্তি ইমেজের পাশাপাশি এরশাদের জনপ্রিয়তাকে কাজে লাগিয়ে ভোটযুদ্ধে জয়ী হবার আশা করছে জাতীয় পার্টি।

রংপুর সিটিতে এবার মেয়র পদে ৭ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করলেও লড়াই হবে আওয়ামী লীগের সরফুদ্দিন আহমেদ ঝন্টু, জাতীয় পার্টির মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা ও বিএনপির কাওসার জামান বাবলার মধ্যে।

ফেসবুক মন্তব্য