নিউজটি পড়া হয়েছে 220

একাকীত্ব যখন ধূমপানের চাইতেও ভয়াবহ!

সিলনিউজ অনলাইন ডেস্কঃ একাকী থাকাটা শুধু যে আমাদেরকে বিষণ্ণ করে তোল, তা কিন্তু নয়। আমাদের শারীরিক অবস্থাও তা খারাপ করে তোলে। একা থাকা, অন্যদের থেকে দুরত্ব বজায় রাখাটা সব বয়সী মানুষের জন্যই ক্ষতিকর। দিনে ১৫টি সিগারেটের ধুমপান করার মতই ক্ষতিকর এই একাকীত্ব।

একাকীত্বের ক্ষতিকর দিকগুলো নিয়ে বেশি চিন্তিত ইংল্যান্ড। এক গবেষণায় দেখা যায় সেখানে ৯ মিলিয়ন মানুষ একাকীত্বে ভুগছে, আর ভোগ করছে এর শারীরিক ও মানসিক ক্ষতিকর প্রভাব।

সমাজ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়লে মানুষ অবধারিতভাবেই বিষণ্ণতায় ভোগে। শুধু তাই নয়, বয়স্ক মানুষদের আত্মহত্যার একটা বড় কারণও এই একাকীত্ব। এছাড়া একা থাকলে মস্তিষ্কের সক্রিয়তা কমে, ফলে তাদের মাঝে ডেমেনশিয়া এবং কগনিটিভ ডিক্লাইনের ঝুঁকি হয় বেশি।

এমন মানসিক সমস্যাগুলো শুধু নয়, একাকীত্বের ফলে সরাসরি কিছু শারীরিক সমস্যাও হতে পারে। একা মানুষদের মৃত্যু ঝুঁকি থাকে অন্যদের তুলনায় ২৬ শতাংশ বেশি। তাদের উচ্চ রক্তচাপ এবং ওবেসিটির ঝুঁকিও বেশি থাকে। দেখা গেছে, দৈনিক ১৫টি সিগারেট থেকে ধুমপান করা আর সমাজ থেকে বিচ্ছিন্ন একাকী জীবন যাপনের ক্ষতি একই। কিছুদিন আগেও ডাক্তাররা হুঁশিয়ারি দিতেন, ডায়াবেটিসের মত অসুস্থতা সারাজীবন বয়ে বেড়ানোর মতই ক্ষতিকর হলো একাকীত্ব। একাকী থাকা এসব মানুষ অসুস্থ হয়ে পড়েন বেশি। দেশের সরকার, কর্মক্ষেত্রের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান, পরিবার, সমাজ সবারই উচিত একাকীত্বের এই ক্ষতি কমিয়ে আনতে একযোগে কাজ করা।

 

সুত্র: IFLScience

ফেসবুক মন্তব্য