নিউজটি পড়া হয়েছে 115

সুপারস্টার শাকিব খান ডিভোর্সের চিঠি পাঠিয়েছেন অপু বিশ্বাসকে।

সিলনিউজটুয়েন্টিফোরডটকম ::: অবশেষে সত্যি হলো গুঞ্জন! ঢাকাই চলচ্চিত্রের সুপারস্টার শাকিব খান ডিভোর্সের চিঠি পাঠিয়েছেন স্ত্রী অপু বিশ্বাসকে। এর মাধ্যমে শেষ হলো ঢাকাই চলচ্চিত্রের এই জুটির ৯ বছরের দাম্পত্য সম্পর্ক। 

শাকিব খানের ঘনিষ্ঠ এক সূত্র নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানিয়েছেন, অনেক আগেই ডিভোর্সের চিঠিতে স্বাক্ষর করে রেখেছিলেন শাকিব খান। তিন দিন আগে সেই চিঠি এক আত্মীয়ের মারফতে অপুর কাছে পাঠানো হয়।

অপু বিশ্বাস ও তার ছেলে আব্রাহাম খান জয়
অপু বিশ্বাস ও তার ছেলে আব্রাহাম খান জয়

শাকিব এখন ভারতে আছেন পরবর্তী সিনেমার শুটিং-এর কাজে। তার আত্মীয়ও চিঠি পাঠিয়ে ভারতে চলে গেছেন।

২০০৮ সালের ১৮ এপ্রিল খ্যাতির শীর্ষে থাকা অবস্থায় গোপনে বিয়ে হয় শাকিব-অপু জুটির। এরপর দীর্ঘ নয় বছর গণমাধ্যমকে আড়াল করে গোপনে সংসার চালিয়ে যেতে সক্ষম হন তারা। এমনকি ২০১৬’র সেপ্টেম্বরে সন্তান আব্রাম খান জয়ের জন্ম হলেও সেই খবরও ছয় মাস পর্যন্ত চেপে রেখেছিলেন শাকিব খান।

সন্তান সম্ভবা হওয়ার পর ঢালিউডের শীর্ষ নায়িকা থাকা অবস্থায় নিজেকে পর্দার আড়ালে সরিয়ে নেন অপু। দীর্ঘ এক বছর তিনি মিডিয়ার সামনে আসেননি। 

এরপর ২০১৭’র ১০ এপ্রিল হঠাৎ করেই শিশু সন্তান আব্রামকে কোলে নিয়ে একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলের লাইভে এসে অপু প্রকাশ করেন শাকিব খানের সঙ্গে তার সংসার ও সন্তান হওয়ার খবর। অবন্তী বিশ্বাস অপু থেকে ধর্মান্তরিত হয়ে অপু ইসলাম খান নাম নিয়ে শাকিবকে বিয়ে করার কথাও জানান তিনি। 

বিয়ের কথা প্রকাশ করার পর থেকেই এ নিয়ে তুমুল বিতর্ক ওঠে দেশজুড়ে। দেশের শীর্ষ একটি দৈনিককে দেয়া সাক্ষাৎকারে শাকিব বলেছিলেন, তিনি চান না মা হওয়ার পর অপু আর চলচ্চিত্রে অভিনয় করুন।

কিছুদিন আগেই সন্তানের এক বছরের জন্মদিনের বড় আয়োজন করেন অপু বিশ্বাস। সেখানে তার স্বামী শাকিব খানকে দেখা যায়নি। যদিও সেসময় তিনি দেশেই অবস্থান করছিলেন।

এর কিছুদিন পরই গুজব ওঠে অপু বিশ্বাসকে ডিভোর্স দিচ্ছেন শাকিব খান। অবশেষে সেই গুঞ্জনই হলো সত্যি।


সুত্রঃ সময় টিভি

ফেসবুক মন্তব্য
Share Button