নিউজটি পড়া হয়েছে 166

কবিতা : একদিন বদলে যাবে তুমি

** একদিন বদলে যাবে তুমি **

——————কাশফিয়া আঁখি

একদিন বদলে যাবে তুমি।
বদল হবে এ রোজকার দিনলিপির।
তোমার উঠোন ভর্তি সুখ ছড়িয়ে রবে,
বারান্দায় রবে নীল প্রজাপতির ঝাপাঝাপি।
শোবার ঘরে কাচের চুড়ি ভাঙার মিহি শব্দরা খেলে যাবে অলস বিকেলে।
খাবার ঘরে রবে কফি কাপের সাথে চামচের যৌথ আলাপন।

একদিন খুব করে বদলে যাবে তুমি!
এই যে এতো সব ঘুমহীন কাব্যের ছুটি হবে,
চোখের পাতায় সেদিন এঁটে রবে বহুমুখী স্বপ্নের ফুলঝুড়ি।
ইট পাথরের চার দেয়াল সেদিন আর দম বন্ধ করা বিদঘুঁটে গন্ধ ছড়াবে না।
দরজা জানালা বন্ধ ঘরে বুনো ফুলের মাদকতায় বুঁদ হয়ে কেটে যাবে তোমার অযুত অমাবস্যা-পূর্ণিমা।

একদিন খুব বদলে যাবে তুমি।

ওয়েলেটে রাখা আমার প্রথম চিঠিটার হবে যায়গা বদল বাজারের ফর্দের সাথে।
আমার ভেতর ডুব মেরে থাকা তুমি
রাত দিনের সূচালো ব্যস্ততার কাছে মেনে নেবে অনাকাঙ্ক্ষিত পরাজয়।
লেখার খাতা,আঁকার কাগজ,রং তুলিরা একদিন ঘর বদলের দুঃখে মুষলে কাঁদবে তোমাদের শীর্ণ সিন্ধুকে।

একদিন খুব করে বদলে যাবে তুমি।
ঘুম প্রিয় সকাল আর থাকবেনা
রাখবেনা জিইয়ে আলস্য।
খুব ভোরে ট্রাক স্যুট পরে বেরিয়ে পরবে রাস্তায়।
খবরের কাগজ থেকে মুখ তুলবে তুমিও চোখ ভরা বিরক্তি আর দুশ্চিন্তার ছাপ মেখে।
রোজকার রেপকেস গুলো দীর্ঘায়িত করবে তোমার কপালের ভাঁজ ঘরে থাকা আদুরে কন্যার কথা ভেবে।

একদিন খুব বদলে যাবে তুমি।
সময়ের সাথে হিসেব মিলিয়ে ফেলবে পা
মেলবে বুঁজবে চোখ।
বাজারের ব্যাগ,বাচ্চার স্কুল ব্যাগ হাতে ছুটবে ব্যস্ত পায়।
বাড়ি ভাড়া,বিদ্যুৎ বিল,ইন্টারনেট বিল,দুধ ওয়ালা,পত্রিকা ওয়ালা,লন্ড্রির বিল,বুয়ার মাইনে সব কিছু মানিয়ে গুছিয়ে চলবে অবলীলায়।

কোন এক বিকেলে এক মুঠো অবসর পেলেই ব্যস্ত রবে
বউয়ের চুড়ি,টিপ আর কন্টেসেপটিক পিল কিনতে।

একদিন খুব বদলে যাবে তুমি।
বদলে যাবে হাসির পথরেখা
সুখের অলিগলি
অনুভূতির প্রিয় নদীটাও।
একদিন তুমি হবে একটা সূর্য
আর তোমাকে আবর্তন করতে থাকবে আরো জনা তিনেক মানুষ।

১৯ নভেম্বর ২০১৭

ফেসবুক মন্তব্য