নিউজটি পড়া হয়েছে 43

কবিতা : প্রেয়সী আমার

** প্রেয়সী আমার **

———— ইকবাল এইচকে খোকন

ব্যস্ত রাজপথটা ফাঁকা
হেঁটে চলেছি আমি একা,
গভীর রজনী, নিস্তব্ধ নগর, আকাশে জোছনা,
এ আমার এক পরিচিত মুহূর্ত।

তবে আজ ভালোলাগা নয়, ব্যথায় মনটা বিধ্বস্ত
হেঁটে চলেছি গন্তব্যহীন, ঠোঁটে বেনসনের জ্বলন্ত কুণ্ড,
ধোঁয়ার সাথে আবছা দেখি চোখে, কিছুটা অশ্রুও,
রন্ধ্রে রন্ধ্রে কষ্টের থাবা, যেন নিঃশ্বাস বন্ধ হচ্ছে,
চিৎকার করতে পারিনা.. বলতেও পারিনা..
হে মহানগরবাসী তোমরা শোন…!

বুকটা ফেটে যাচ্ছে নীল কষ্টে, ব্যক্ত করতে পারিনা তা,
এ যন্ত্রণা সয়না, তবুও ভুলে যাওয়ার সংগ্রামে হেঁটে চলেছি নিরবে।

সোডিয়াম আলোয় নিজেকে দেখতে পাই,
আবিষ্কার করি আমি কতো দুঃখী!
আর সবাই কতো গভীর সুখে নিদ্রায়।

যে আমাকে রাস্তায় নামাল সে কি করছে এখন?
এতক্ষণে নিশ্চয়ই স্বামীর কাছে হারিয়েছে কুমারিত্ব!
গভীর সুখে জড়াজড়ি করে শুয়ে আছে!

মেয়েরা কেমন করে এতো পাষাণী হয়,
মন দেয় একজনকে, আর দেহ দেয় অন্যজনকে!
অথচ কৃত্রিম প্রেমের মিথ্যে বুলি শুনায় তারা,
বলে… তোমাকে ছাড়া বাঁচবনা, তুমি আমার।

প্রেম নিয়ে কি রাজনীতিটাইনা করে মেয়েরা,
হৃদয় নিয়েও করে প্রহসন, হায়রে নারী!

যুগ যুগ ধরে আমার মতো হতভাগাদের
কতই না কাঁদিয়েছে, কতই না নাচিয়েছে,
কত জনেরই না হাতে ধরিয়ে দিয়েছে
হেরোইন, ফেনসিডিল কিংবা সিগারেটের স্তুপ।

ধ্বংস হই আমরা আর সুখে উল্লাস করে ওরা,
এ স্বৈরাচারী প্রেম কি বন্ধ হবেনা?

প্রেমের এ প্রহসনে পরে হাসব
নাকি ডুকরে ডুকরে কাঁদব
বুঝতে পারিনা আমি।

জোনাকি উড়া রাতে সেই কখন থেকেই
রাজপথে হাঁটছি…
টিলাগড় থেকে চলে এসেছি নাইওরপুল,
এখনো থামছেনা ভাবনাগুলো,
বুকের ভেতর স্মৃতিগুলো স্লোগান দিচ্ছে অনবরত।

থমকে দাঁড়াই, ভোরের আজান শুনা যাচ্ছে,
এখন বাড়ী ফিরব…ঘুমাবো…
আর একটু পরেই ঘুম থেকে জাগবে আমার প্রেয়সী
নতুন জীবনের প্রথম সোনালী প্রভাতে।

 

লেখকঃ

সম্পাদক, সিলনিউ২৪.কম

১৭ নভেম্বর ২০১৭

  • প্রথম প্রকাশ আগস্ট ২০০০ ইং
ফেসবুক মন্তব্য
Share Button