ফুডগ্রেন লাইসেন্সের আওতায় আসছে পাইকার ও খুচরা চাল ব্যবসায়ীরা।

সিলনিউজটুয়েন্টিফোরডটকম :::: অতিরিক্ত মজুত ঠেকাতে এবার চালকল মালিক ছাড়াও আমদানিকারক, পাইকার ও খুচরা ব্যবসায়ীদের ফুডগ্রেন লাইসেন্সের আওতায় আনার পরিকল্পনা নিয়েছে সরকার। এরইমধ্যে উক্ত কার্যক্রম শুরু করেছে কুষ্টিয়ার খাদ্য বিভাগ। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, চালের সঠিক মজুতের পরিমাণ নিশ্চিতে এমন পদক্ষেপে ইতিবাচক সাড়া মিলেছে।

এতদিন চালের মজুদের ধারণা পেতে সরকারকে নির্ভর করতে হতো চালকল মালিকদের ওপর। কিন্তু আমদানিকারক, পাইকার ও খুচরা ব্যবসায়ীদের কাছে কী পরিমাণ মজুদ আছে তা থেকে যেত অজানা। এবার তাই মজুদের সঠিক পরিমাণ জানতে সবাইকে লাইসেন্সের আওতায় আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

Facebook Comments